সর্বশেষ খবর

   ‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন    শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা    বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম    বিয়ানীবাজারে জেনোসিডিল সহ যুবক আটক    বজ্রপাতের সময়ে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হয়    এবার গোপালগঞ্জে বাসচাপায় এক নারী নিহত    সিকৃবিতে ‘সেলফ এসেসমেন্ট’ কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত    প্রভাষক জুয়েল হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন    সিলেটে মশা নিধনে কার্যকর পদক্ষেপের দাবি    রাজনগরে গৃহবধূ খুন    বাংলাদেশ লোকসংস্কৃতি ফোরাম এর সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি অসিত বরণ    ধোপাদিঘীর ‘ক্ষতি নয়,সৌন্দর্যবর্ধন করছে’ সিসিক    সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার    সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক    শাবিতে আসছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান    কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩    পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেকের লিগ্যাল নোটিশ    বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা    জাতীয় পার্টিতে বিএনপির অনেক নেতাই যোগ দেবে: এরশাদ    সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান


বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল বের করেছিল।

তবে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে বিএনপির ওই বিক্ষোভ মিছিল পিটিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা বিস্তারিত

খেলাধুলা

ম্যানসিটি, আর্সেনালের গোল উৎসবের রাত

পাঁচ ম্যাচ হাতে রেখে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ঘরে তুলেছে ম্যানচেস্টার সিটি। তারপরও যেন থামতে চাইছেন না পেপ গার্দিওলার অপ্রতিরোধ্য দলটি।

সোয়ানসি সিটির বিপক্ষে মুখোমুখি লড়াইয়ে ৫-০ গোলে দাপুটে জয় পেয়েছে ম্যানসিটি। ইংলিশ লিগের অপর ম্যাচে প্রতিশোধ নিতে গিয়ে ওয়েস্টহাম ইউনাইটেডকে ৪-০ গোল উড়িয়ে দিয়েছে আর্সেনাল।

চিরচেনা ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যানসিটির গোল উৎসবের রাতে একটি করে গোল করেছেন ডেভিড সিলভা, রহিম স্টার্লিং, কেভিন ডি ব্রুইনে, বের্নান্দো সিলভা এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুস।

টেবিলের তলানীর দিকে থাকা সোয়ানসি সিটিকে পেয়ে প্রতিপক্ষের জাল কাঁপানোর অনুশীলনটা আরেকবার সেরে নিল চ্যাম্পিয়ন সিটি। সোয়ানসি সিটির বিপক্ষে এ জয়ে ৩৪ ম্যাচ শেষে ম্যানসিটির পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে ৯০। বাকি চার ম্যাচে ভালো করে এবার পয়েন্টের সেঞ্চুরিতে পৌঁছার নজর থাকবে সিটিজেনদের।

অপর ম্যাচে আর্সেনালের জয়ে জোড়া গোল পেয়েছেন আলেকসঁদ লাকাজেত। ডিসেম্বরে ওয়েস্টহাম ইউনাইটেডের মাঠে খেলতে গিয়ে গোলশূন্য ড্র করেছিল গানাররা। তবে এবার ঘরের মাঠে সেই দলটিকে উড়িয়ে দিয়েছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের দল। লাকজেতের জোড়ার গোলের সঙ্গে অ্যামিরেটস স্টেডিয়ামে একটি করে গোল পেয়েছেন ন্যাচো মনরিল ও অ্যারন র‌্যামসি।

লিগে এ জয়ের পর পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে থাকা আর্সেনালের পয়েন্ট ৩৪ ম্যাচ মেষে ৫৭। সমান ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ১৫তম অবস্থানে ওয়েস্টহাম ইউনাইটেড।

 


বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

রাজনীতি

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান

ঢাকা: লন্ডনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে নিয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্যের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি।

সরকারের উদ্দেশে বিএনপির এ নেতা বলেন, আপনারা ক্ষমতায় আছেন, হাইকমিশন তো সরকারের নিয়ন্ত্রণে। তা হলে তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিয়ে থাকলে সেটি প্রদর্শন করে সবাইকে দেখান। কই, সেটি তো পারলেন না।‘

‘প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজন হওয়ার জন্য রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মিথ্যা কথা বলে মন্তিত্ব টিকিয়ে রাখার চেষ্টা-আত্মা বিক্রির সমতুল্য,’ যোগ করেন তিনি।

রিজভী আরও বলেন, বিদেশে বাংলাদেশ হাইকমিশনে তারাই পাসপোর্ট জমা দেন, যারা বিদেশিদের বিয়ে করে সে দেশের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন। বিএনপি ও জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ মুখে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলে, কিন্তু তারা নিজেরাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংসকারী দল। তারা মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আতাউর রহমান ঢালী, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহদপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমদ প্রমুখ।
বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

জাতীয় খবর

‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন

জন্মের সময় চিকিৎসকরা শিশুকে মৃত ঘোষণা করেছিলেন। শিশুটিকে দাফন করার উদ্দেশ্যে যখন গোসল করানো হচ্ছিল তখন সে বেঁচে ওঠে। এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। অনেকে চিকিৎসা ব্যবস্থায় জবাবদিহিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

এদিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের দায় এড়াতে দায় চাপাচ্ছে ওই পরিবারের ওপর। শিশুটির মাতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়টি তদন্তে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করেছে।

সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শারমিন নামে নারী একটি মৃত সন্তান জন্ম দেন বলে চিকিৎসকরা তার স্বজনদের জানান। পরে দাফনের জন্য শিশুটিকে আজিমপুর কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শিশুটিকে দাফনের আগে গোসল করাতে গেলে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে থাকে। এরপর তাকে দ্রুত আজিমপুর মাতৃসদন হাসপাতাল ও পরে ঢাকা শিশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিষয়টি জানার পর ঢামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, ওই শিশুটি শারমিনের কী-না তা আগে স্পষ্ট হতে হবে। এজন্য শিশু ও শারমিনের ডিএনএ পরীক্ষার একটি উদ্যোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গ্রহণ করবে বলে জানা গেছে।

ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দীন বলেন, শারমিন নামে এক রোগী আমাদের এখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি ২৭ সপ্তাহের প্রেগনেন্সি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ যখন তার ডেলিভারি হয়েছে তখন একটা মৃত সন্তান জন্ম হয়েছে। সে অনুযায়ী এখনও তার ব্লিডিং হচ্ছে। সেজন্য তার চিকিৎসা চলছে। এখানে তার আত্মীয়-স্বজনদের কাছে মৃত সন্তানটি দেওয়া হয়েছিল।

তিনি বলেন, শারমিনের মৃত সন্তান জন্ম হয়েছে। এখন যে শিশুকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে তার মা যে শারমীন- সেটা নিয়ে আমার সন্দেহ আছে। এটা স্পষ্ট করতে আমরা ডিএনএ পরীক্ষা করব। এ ঘটনা তদন্তের চার সদস্যের কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

সাধারণত হাসপাতালে শিশু জন্মগ্রহণ করলে তাকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সে অনুযায়ী ওই শিশুকেও তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার কথা এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও সেটি করেছে। তাহলে এখন কেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে যে শিশুটি শারমিনের নয়?

এটি সরকারি হাসপাতলের অব্যবস্থাপনাকে ইঙ্গিত দেয় বলে মনে করছেন অনেকে।

আশিক মাহমুদ নামে একজন রাইজিংবিডিকে বলেন, এখানে হাসপাতলের দায়বদ্ধতা রয়েছে। তাদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা না থাকায় মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছেন। সব বিষয় উঠে আসে না। যেসব বিষয় সামনে উঠে আসে সেসব বিষয় থেকে শিক্ষা গ্রহণ না করে দায় চাপানোর একটা সংস্কৃতি আমাদের মধ্যে তৈরি হয়ে গেছে। এর থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।

বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায়, হাসপাতালে একজনের শিশু অন্যজনের বলে চালিয়ে দেওয়ার ঘটনা বহুবার ঘটেছে। সুস্থ সন্তান জন্ম দেওয়ার পরও অনেক মাকে মৃত সন্তান ধরিয়ে দেওয়া হয়। তাছাড়া চিকিৎসকদের অবহেলায় অনেক শিশু মারা যান। এসব বিষয় গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়। ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করলেও সঠিক বিচার পাওয়া যায় না।
বিস্তারিত

আন্তর্জাতিক

কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩

কাবুল: ছ’মাসের মাথায় পার্লামেন্ট আর জেলা কাউন্সিলের নির্বাচন। আপাতত দেশের নানা প্রান্তে জোরকদমে চলছে ভোটার তালিকায় নাম নথিভুক্তির কাজ। আর সেখানেই এ বার জোড়া হামলা চালাল জঙ্গিরা।

জঙ্গি হামলায় ফের রক্তাক্ত আফগানিস্তান। আজ সকালে প্রথমে রাজধানী কাবুলে ভোটার তালিকায় নাম নথিভুক্তি কেন্দ্রের প্রবেশদ্বারে নিজেকে উড়িয়ে দেয় এক আত্মঘাতী জঙ্গি। সেই হামলায় মারা যান ৫৭ জন। আহতের সংখ্যা পঞ্চাশেরও বেশি। বিকেলের দিকে বাগলান প্রদেশের পুল-এ-খুমরি শহরে আর একটি নাম নথিভুক্তি কেন্দ্রের সামনে বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে একই পরিবারের ছ’জনের। নিহতদের গাড়ি রাস্তার ধারে রাখা একটি বোমায় ধাক্কা খায়। সব মিলিয়ে আজকের জোড়া হামলায় নিহতের সংখ্যা ৬৩।

আফগান অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের মুখপাত্র নাজিব দানিশ প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছিলেন, কাবুলের হামলায় তালিবানের হাত থাকার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। যদিও হতাহতের সঠিক সংখ্যা জানাতে পারেননি তিনি। আফগান বিরোধী দলগুলির দাবি, নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে সব হামলার ক্ষেত্রেই নিহতের সংখ্যা নিয়ে গড়মসি করে দেশের সরকার। কিন্তু তালিবান সেই হামলার দায় অস্বীকার করে। আর তার পরই আমাক সংস্থার মাধ্যমে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে আইএস। যদিও রাত পর্যন্ত বাগলানের  হামলার দায় স্বীকার করেনি কেউ।

কাবুলের সিটি পুলিশ প্রধান দাউদ আমিন জানিয়েছেন, কাবুলে নিহত বেশির ভাগই সাধারণ আফগান নাগরিক। ভোটার তালিকায় নাম তোলাতে লাইন দিয়েছিলেন তাঁরা।

কাবুলের নাম নথিভুক্তি কেন্দ্রটি শিয়া সম্প্রদায় অধ্যুষিত এলাকার মধ্যে পড়ে। আজ কেন্দ্রের মূল ফটকের সামনে এসে আচমকাই নিজেকে উড়িয়ে দেয় আত্মঘাতী জঙ্গি। মুহূর্তে আর্তনাদ আর হুড়োহুড়ি শুরু হয়। অনেকেই রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েছেন তত ক্ষণে। বিস্ফোরণের জেরে ওই কেন্দ্রের জানলার কাচ ভেঙে রাস্তায় এসে পড়ে। মাটিতে তখন ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে সরকারি ফর্ম আর ভোটারদের রক্তমাখা ছবি। এই হামলায় বিরক্ত দেশের সাধারণ মানুষও। হামলার পরে ঘটনাস্থলের সামনে দাঁড়িয়ে অনেকেই চিৎকার করতে থাকেন, ‘‘এই সরকারের মৃত্যু হোক। তালিবানের মৃত্যু হোক।’’ স্থানীয় টিভি চ্যানেলে দেখা গিয়েছে, আহত এক ব্যক্তি কাবুলের হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে কাঁদছেন। বললেন, ‘‘আমি জানি না, আমার মেয়েরা কোথায়।’’ আজকের বিস্ফোরণে হতাহতদের মধ্যে রয়েছে বেশ কয়েকটি শিশুও। বাবা-মায়ের সঙ্গে লাইনে দাঁড়িয়েছিল তারাও।

আগামী ২০ অক্টোবর আফগানিস্তানে ভোট। এই ভোটের ফলাফলের উপর নির্ভর করছে আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফলও। আগামী দু’মাসের মধ্যে মোট সাত হাজার কেন্দ্রে এক কোটি ৪০ লক্ষ আফগানের নাম নথিভুক্তি করার কথা। কিন্তু সেটা যে সহজ হবে না, তা এখন থেকেই টের পাচ্ছে প্রশাসন। নির্বাচন ব্যবস্থায় বাধা দিতে এর আগেও কয়েকটি নাম নথিভুক্তি কেন্দ্রে হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা। তবে আজকের মতো এত বড় হামলা প্রথম। কাবুলের এক স্থানীয় বাসিন্দা বললেন, ‘‘আমরা বুঝে গিয়েছি, এই সরকার আমাদের কোনও নিরাপত্তা দিতে পারবে না। নিজেদের সুরক্ষিত রাখার ব্যবস্থা আমাদেরই করতে হবে।’’

আজকের জঙ্গি হামলার নিন্দা করেছে পড়শি দেশ ভারত। বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জারি করা এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘‘নিরীহ আফগানদের উপর এই কাপুরুষোচিত হামলার কড়া নিন্দা করছে ভারত। এই হামলা আসলে গণতন্ত্রের উপর হামলা।’’
বিস্তারিত

অর্থনীতি

সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার

এসএমই ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ও দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সহযোগিতায় “ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পোদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্সের ব্যবহার” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার সকাল ১১টায় চেম্বার কনফারেন্স হলে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট রেঞ্জ এর ডিআইজি মোঃ কামরুল আহসান, বিপিএম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- এসএমই ফাউন্ডেশনের ডিজিএম আব্দুস সালাম সরদার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিআইজি বলেন, বাংলাদেশে অল্প কয়েকবছর আগে ই-কমার্সের যাত্রা শুরু হলেও বিশ্বের অন্যান্য দেশে ই-কমার্স ব্যবসা-বাণিজ্যের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় মাধ্যম। ই-কমার্সের মাধ্যমে যেকোন পণ্যকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভব।

তিনি বলেন, একটি হিসাবমতে বর্তমানে বাংলাদেশের প্রায় ৪ কোটি লোক ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, যা বিশ্বের অনেক দেশের মোট জনসংখ্যার থেকেও বেশী। এ বিষয়টি আমাদের জন্য অত্যন্ত ইতিবাচক। তিনি ই-কমার্সকে জনপ্রিয় করে তুলতে তরুণ সমাজের ভূমিকা রাখা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন।

সেমিনারের বিষয়বস্তুর উপর তথ্যবহুল কী-নোট পেপার উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল, সিলেট কার্যালয়ের সেন্টার ইনচার্জ মধুসূদন চন্দ।

সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- সিলেট চেম্বারের পরিচালক ও এফবিসিসিআই এর প্রাক্তন পরিচালক মোঃ হিজকিল গুলজার, জিয়াউল হক, নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন সাব কমিটির আহবায়ক মধুমিতা ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের পরিচালক মুজিবুর রহমান মিন্টু, প্রাক্তন পরিচালক এম. এ. ওয়াদুদ, সাংবাদিক মুহিত চৌধুরী, বাসস সিলেট এর ব্যুরো প্রধান মকসুদ আহমদ মকসুদ, এসএমই ফাউন্ডেশনের এসিসটেন্ট ম্যানেজার সাইফুর রহমান মানিক, প্রশিক্ষক ইশরাত জাহান ইলা, গুলজাহান বেগম এবং সেমিনারে অংশগ্রহণকারী এসএমই উদ্যোক্তাবৃন্দ।               
বিস্তারিত

তথ্য প্রযুক্তি

তথ্য-প্রযুক্তি স্মার্টফোনের নেশা থেকে মুক্তি পেতে করণীয়

প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় এখন মানুষের হাতে হাতে স্মার্টফোন। স্মার্টফোন ছাড়া এখন অধিকাংশই চোখে অন্ধকার দেখেন। খুব কম সময়ে দূর-দুরান্তের খবর হাতের মুঠোয় এনে দেয় এই স্মার্টফোন। রাস্তা হারিয়ে ফেললে স্মার্টফোনই চিনিয়ে নিয়ে যায় গন্তব্যস্থল। এ রকমই অনেক সুবিধা মানুষকে এনে দেয় স্মার্টফোন। কিন্তু শুধুই কি সুবিধা? স্মার্টফোনের ব্যবহার যেভাবে বাড়ছে, তাতে অনেকেই স্মার্টফোনে আসক্ত। নেশাগ্রস্ত হয়ে অন্যান্য কাজ ভুল করছে মানুষ। কিন্তু সব সমস্যারই সমাধান রয়েছে। তাই জেনে নিন স্মার্টফোনের নেশা থেকে মুক্তি পেতে কী করতে হবে?

১. অফিসে কাজ করার সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করতেই হয়। তাই কাজ হয়ে গেলে চেষ্টা করুন ফোনের অ্যাপগুলোর নোটিফিকেশন অফ করে রাখতে।

২. এরকম অনেক অ্যাপ রয়েছে, যেগুলোর দ্বারা আপনি সীমিত পরিমাণ ডেটা ব্যবহার করতে পারবেন। আপনার ফোনের পরিসেবায় যতই ডেটা থাকুক না কেন, এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমাণ ডেটাই আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। দিনে কতটা ডেটা ব্যবহার করবেন, তা আপনি নিজেই ঠিক করে নিতে পারবেন।

৩. যত ভালই অফার কোনো টেলিকম কোম্পানি দিক, সেই অফারগুলো নেবেন না। কম ডেটা রিচার্জ করুন। এতে ডেটা শেষ হয়ে গেলে আপনি আর স্মার্টফোন নিয়ে বসে থাকবেন না।

৪. যে মুহূর্তে বুঝবেন যে, আপনি স্মার্টফোনের প্রতি আসক্ত, সেই মুহূর্তেই যে অ্যাপগুলো সব থেকে বেশি ব্যবহার করেন, সেগুলো ফোন থেকে আনইনস্টল করে দিন।

৫. ঘুমাতে যাওয়ার আগে ফোন দূরে রেখে ঘুমাতে যান। কোনো ঘড়িতে অ্যালার্ম দিন।

৬. বাড়িতে ‘নো-ফোন এরিয়া’ তৈরি করুন। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর সময়ে, বা খাবার খাওয়ার সময়ে ফোন হাতের কাছ থেকে দূরে রাখুন।

৭. সব কথা চ্যাটে না বলে, ফোন করে কথা বলুন। এতে কম সময়ে তাড়াতাড়ি কাজ হবে।

৮. সোশ্যাল মিডিয়াতে কম পোস্ট করুন। এতে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার আ্যক্টিভিটি কম হবে। ফলে নোটিফিকেশনও কম আসবে।

৯. হাতে ঘড়ি পরার অভ্যাস করুন। এতে বার বার ফোন চেক করার প্রবণতা কমবে।
বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মিডিয়া

বৃটেনে সাংবাদিক ফারজানা রুপার ওপর হামলা : ডিআরইউর উদ্বেগ

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সদস্য ও একাত্তর টিভির বিশেষ প্রতিনিধি ফারজানা রুপার ওপর বৃটেনে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ডিআরইউ।

ডিআরইউ সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুকুর আলী শুভ এক বিবৃতিতে বলেন, ফারজানা রুপার ওপর হামলার ঘটনা সন্ত্রাসীদের নগ্ন চেহারার বহিঃপ্রকাশ। হামলাকারীরা যে দেশের নাগরিকই হোক না কেন তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া প্রয়োজন। বিষয়টি যথাযথ তদন্ত করে অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য বৃটিশ সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তারা। একই সঙ্গে সফররত ফারজানা রুপার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি অবিলম্বে লুণ্ঠিত ক্যামেরা উদ্ধারের জন্য সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন নেতৃবৃন্দ।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বৃটেনের মতো উন্নত গণতান্ত্রিক এবং বহুমতে বিশ্বাসী প্রগতিশীল রাষ্ট্রে এ ধরনের সন্ত্রাসী হামলার পর অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে দেশটির প্রতি মানুষের আস্থার সংকট তৈরি হবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার নিউ ক্যাসেল এলাকায় কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনের রিপোর্ট সংগ্রহের সময় একাত্তর টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিনিধি ফারজানা রুপা সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন এবং সন্ত্রাসীরা তার ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

প্রবাস জীবন

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও করনীয় শীর্ষক সেমিনার

'বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার' উদ্যোগে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও  করনীয় শীর্ষক সেমিনার রবিবার সিডনির ক্যান্টাবেরি লীগ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোঃ মোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ আলোকপাত করেন- চালস স্টুয়ার্ট  বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শিবলী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

বাংলাদেশের গণতন্ত্রে ভবিষৎ নিয়ে তথ্য বহুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন- ভয়েস অফ সিডনির মহাপরিচালক ডঃ নার্গিস বানু।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার একে এম আসাদজ্জামানের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন পলিসি ফোরামের প্রধান উপদেষ্টা মোঃদেলোয়ার হোসেন, কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব লিয়াকত আলী স্বপন, লেবার পাটি ল্যাকেম্বার সভাপতি মোঃলুৎফুল কবির, আমরা বাংলাদেশী সংগঠনের ইব্রাহিম খলিল মাসুদ, লেবার পাটি ক্যামসির সভাপতি হাবিব মোহাম্মদ জকি, বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক এস এম নিগার এলাহী চৌধুরী, স্প্রুভাত সিডনির সম্পাদক ডঃফারুক আমিন, রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব এম এইচ ইসমাঈল, স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি এএনএম মাসুম, স্বাধীনকন্ঠের সম্পাদক মিজানুর রহমান সুমন, নিউসাউথওয়লস এসোসিয়েশনের মোঃ হাবিবুর রহমান।

সেমিনারে কমিউনিটি, সাংবাদিক এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯০এর সাবেক ছাত্রনেতা মোঃরুহুল আমিন, বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার সহ সভাপতি মোঃমোবারক হোসেন, স্বদেশবার্তার সম্পাদক আউয়াল খান, নিউসাউথওয়েলস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃজামিল হোসেন, যুবদলের সভাপতি ইয়াসির আরাফাত সবুজ, সাধারন সম্পাদক খাইরুল কবির পিন্টু, নিউসাউথওয়েলস বিএনপির সভাপতি ইন্জানিয়ার মোঃকামরুল ইসলাম শামীম, আব্দুস সামাদ শিবলু,মোঃরাশেদ খান, এসএম খালেদ, মোঃআরিফুর রহমান, মোঃজুম্মন হোসেন, নজরুল ইসলাম, জাকির হোসেন রাজু, জেবল হক জাবেদ, মোঃজসিম উদ্দিন, আব্দুল মজিদ, আব্দুল করিম, আনিসুর রহমান, শফিকুল ইসলাম, আব্দুস সামাদ, মিজানুর রহমান সহ আর ও অনেকে।                                                   

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা নিয়ে সংকিত, যেই দেশটি স্বাধীন হয়েছিল গণতন্ত্র ভোটাধিকার আইনের শ্বাসন এবং সকলের মানবিক মূল্যবোধ সুপ্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য সেই দেশে আজ নাই মানুষের ভোটাধিকার। নেই আইনের শ্বাসন, নেই মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা, নেই মানবিক মূল্যবোধ। বাংলাদেশ এখন চলছে অঘোষিত স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের অধিনে যেখানে ভোট ছাড়াই সরকার গঠিত। যে দেশে প্রধান বিচারপতিকে রাতের অন্ধকারে দেশ থেকে পালাতে হয়।
বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

চিত্র-বিচিত্র

যে গ্রামে পুরুষের দুই বিয়ে বাধ্যতামূলক!

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের কাছে রাজস্থানের ছোট গ্রাম দেরাসর। প্রত্যন্ত এই গ্রামে রয়েছে এক অদ্ভুত রীতি। এই গ্রামের প্রত্যেক পুরুষকেই দুবার করে বিয়ে করতে হয়। এটা বাধ্যতামূলক!

দেরাসর গ্রামে প্রায় ৬০০ মানুষের বাস। মূলত মুসলিম-অধ্যুষিত গ্রামটিতে সব মিলিয়ে ৭০টি পরিবার রয়েছে। গ্রামবাসীদের দাবি, প্রত্যেক পরিবারই বিয়ে নিয়ে ওই একই রীতি মেনে চলে।

গ্রামবাসীরা জানান, বহু দিন ধরেই ওই প্রথা চলে আসছে। এখনও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ইসলাম ধর্মে বহু বিবাহের অনুমতি রয়েছে। কিন্তু ওই গ্রামে একপ্রকার জোর করেই ছেলেদের দ্বিতীয়বার বিয়ে দিতে বাধ্য করে তাদের পরিবার।

এমন রীতির পেছনে রয়েছে অদ্ভুত কারণ। গ্রামবাসীদের দাবি, আগে গ্রামে যতজন পুরুষ বিয়ে করতেন, তাদের কারোরই প্রথম স্ত্রীর সন্তান হতো না। দ্বিতীয়বার বিয়ের পরেই সেই স্ত্রীর গর্ভে সন্তান আসত। বহুকাল ধরে এমন ঘটনাই ঘটে আসছে ওই গ্রামে এবং সেটাকেই রীতি হিসেবে অনুসরণ করে চলেছেন গ্রামবাসীরা।

এদিকে দ্বিতীয়বার বিয়েকে ওই গ্রামে শুভ কাজ বলেই মনে করা হয়। প্রথম স্ত্রীও তার সতীনের সঙ্গে বেশ মানিয়ে গুছিয়েই ঘর করেন। তার সন্তানদেরও নিজের সন্তান মনে করেই বড় করে তোলেন।
বিস্তারিত

এ সংক্রান্ত আরও খবর

শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা

ঢাকাই চলচ্চিত্রের তরুণ নির্মাতা মিজানুর রহমান মিজান নির্মাণ করছেন একাধিক সিনেমা। এর মধ্যে একটি ‘তোলপাড়’। এই সিনেমাটির ৩০ ভাগ কাজ শেষ

বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম

ইংল্যান্ডের লর্ডসে ৩১ মে একটি চ্যারিটি ম্যাচ খেলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ আইসিসি বিশ্ব একাদশ। টি-টোয়েন্টি এই ম্যাচের জন্য

  • ‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন
  • শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা
  • বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম
  • বিয়ানীবাজারে জেনোসিডিল সহ যুবক আটক
  • বজ্রপাতের সময়ে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হয়
  • এবার গোপালগঞ্জে বাসচাপায় এক নারী নিহত
  • সিকৃবিতে ‘সেলফ এসেসমেন্ট’ কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত
  • প্রভাষক জুয়েল হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন
  • সিলেটে মশা নিধনে কার্যকর পদক্ষেপের দাবি
  • রাজনগরে গৃহবধূ খুন
  • বাংলাদেশ লোকসংস্কৃতি ফোরাম এর সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি অসিত বরণ
  • ধোপাদিঘীর ‘ক্ষতি নয়,সৌন্দর্যবর্ধন করছে’ সিসিক
  • সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার
  • সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক
  • শাবিতে আসছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান
  • কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩
  • পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেকের লিগ্যাল নোটিশ
  • বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা
  • জাতীয় পার্টিতে বিএনপির অনেক নেতাই যোগ দেবে: এরশাদ
  • সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান
  • বিল্লাল হত্যা মামলা ১৩ জনের ফাঁসির আদেশ
  • বৃটেনে সাংবাদিক ফারজানা রুপার ওপর হামলা : ডিআরইউর উদ্বেগ
  • অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও করনীয় শীর্ষক সেমিনার
  • তথ্য-প্রযুক্তি স্মার্টফোনের নেশা থেকে মুক্তি পেতে করণীয়
  • মুসলমানরাই সবচেয়ে বেশি সন্ত্রাসের শিকার: বান কি মুন   ৫০৬৯৯
  • ছলনাময়ী নারীদের চেনার উপায়   ১৪৮৯১
  • মেয়র কালামের পায়ের নিচে ওসি আতাউর শার্ট খুলে লিনডাউন,তারপর জুতো পেটার প্রস্তাব   ১৪৭৯৯
  • জুমার নামাজ ছুটে গেলে কী করবেন?   ১৩৪৪৮
  • ​চিনা কোম্পানিকে কাজ দিতে প্রতিমন্ত্রী তারানার স্বাক্ষর জাল   ৯৪৩০
  • জেনে নিন ছুলি দূর করতে কিছু ঘরোয়া উপায়   ৯৩৪২
  • মুসাফির কাকে বলে? মুসাফিরের রোযা ভঙ্গ করলে   ৮৯৩৩
  • ডিমের পর স্বয়ংসম্পূর্ণতার পথে সোনালি মুরগি   ৮৭৭১
  • গরুর দুধের অসাধারণ কয়েকটি গুণ   ৮৪৭৯
  • ঋণখেলাপি নই-হুন্ডি ব্যবসায়িও নই,সম্পত্তি নিলামের খবর অপপ্রচার-নাসির   ৮৪৬০
  • খতমে ইউনুস নামে সামাজে চলে আসা জালিয়াতী   ৭৮৭২
  • মুঘল সম্রাটদের দিনযাপন   ৭০১৮
  • হযরত শাহ্‌ জালাল ইয়েমেনী (রাঃ)-এঁর সংক্ষিপ্ত জীবনী   ৬৪৫৯
  • চিত্রনায়িকা সাহারার সেক্স ভিডিও ফাঁস!   ৬৪২৪
  • ম,আ,মুক্তাদিরের ছেলে রাহাত লন্ডনে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে   ৬৪১০
  • শিশুর কানে আজান দেবে কে?   ৬২৮০
  • প্রশ্নব্যাংকে প্রশ্ন, স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাছাই হয়ে পরীক্ষা   ৫৭৪১
  • কামরূপ-কামাখ্যা : নারী শাসিত যাদুর ভূ-খন্ড   ৫৭৩২
  • ফুলবাড়ির বশর চেীধুরী আজ ইন্তেকাল করেছেন   ৫৬৪৯
  • চিকিৎসায় দ্রুত সরকারি সহযোগিতা চান খাদিজার বাবা মাসুক মিয়া   ৫৪১৯
  • বাংলাদেশে ইসলামের সূচনা যেভাবে   ৫১৩১
  • ভাল একটা ছবি নিয়ে আসছি এটাই আনন্দের- পপি   ৫১২৪
  • ভারত-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক, চীন-পাকিস্তান সমীকরণ   ৫০০৯
  • রাজি নন কারিনা   ৪৭৯৭
  • সাম্প্রতিক ভিডিও

    আজকের ভোট

    আগের সব ফলাফল

    Our Facebook Page