সর্বশেষ খবর

   ‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন    শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা    বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম    বিয়ানীবাজারে জেনোসিডিল সহ যুবক আটক    বজ্রপাতের সময়ে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হয়    এবার গোপালগঞ্জে বাসচাপায় এক নারী নিহত    সিকৃবিতে ‘সেলফ এসেসমেন্ট’ কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত    প্রভাষক জুয়েল হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন    সিলেটে মশা নিধনে কার্যকর পদক্ষেপের দাবি    রাজনগরে গৃহবধূ খুন    বাংলাদেশ লোকসংস্কৃতি ফোরাম এর সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি অসিত বরণ    ধোপাদিঘীর ‘ক্ষতি নয়,সৌন্দর্যবর্ধন করছে’ সিসিক    সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার    সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক    শাবিতে আসছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান    কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩    পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেকের লিগ্যাল নোটিশ    বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা    জাতীয় পার্টিতে বিএনপির অনেক নেতাই যোগ দেবে: এরশাদ    সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান


খবর - প্রবাস

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও করনীয় শীর্ষক সেমিনার

'বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার' উদ্যোগে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও  করনীয় শীর্ষক সেমিনার রবিবার সিডনির ক্যান্টাবেরি লীগ ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোঃ মোসলেহ উদ্দিন হাওলাদার আরিফের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ আলোকপাত করেন- চালস স্টুয়ার্ট  বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক শিবলী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

বাংলাদেশের গণতন্ত্রে ভবিষৎ নিয়ে তথ্য বহুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন- ভয়েস অফ সিডনির মহাপরিচালক ডঃ নার্গিস বানু।

বাংলাদেশ পলিসি ফোরাম অস্ট্রেলিয়ার একে এম আসাদজ্জামানের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন পলিসি ফোরামের প্রধান উপদেষ্টা মোঃদেলোয়ার হোসেন, কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব লিয়াকত আলী স্বপন, লেবার পাটি বিস্তারিত

প্যারিসে সবুজ বাংলা বুশারি শপের উদ্ভোধন

অল্প মূল্যে দেশীয় পন্যে  ও হালাল খাবার সামগ্রী পরিবেশনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্যারিসের রোই দো ওভারভিলিয়াতে সবুজ বাংলা বুশারি শপের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার বিকেলে  বাংলাদেশী এ শপের আনুষ্ঠানিক ফিতা কেটে উদ্বোধন করা হয়।

বর্ণিল আয়োজনে বিপুল সংখ্যক প্রবাসীদের উপস্হিতিতে প্রতিষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক খলিল আহমদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের সভাপতি সালেহ আহমদ চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্যারিস- বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এনায়েত হোসেন সোহেল, কৃষক আব্দুল কাইয়ুম,কাওছার আহমদ , সাকেল আহমদ, কাওছার আহমদ, বাইস উদ্দিন প্রমুখ।

এ সময় প্রধান অতিথি সালেহ আহমদ চৌধুরী বলেন , ফ্রান্সে বাংলাদেশীদের ব্যবসা ক্ষেত্র দিন দিন প্রসার হচ্ছে। এটা আশাব্যঞ্জক। এতে করে বাংলাদেশীদের কর্মস্থানের সুযোগ বৃদ্ধি পাবে। ফলে একদিকে যেমন প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাদের জীবন জীবিকা নির্বাহ করতে সমৃদ্ধি হবে অন্যদিকে বাংলাদেশ সরকারের রেমিটেন্স বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। বক্তারা অন্যান্য প্রবাসী বাংলাদেশীদের এ রকম ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।এসময় তিনি সবুজ বাংলা বুশারি শপের উজ্জল ভবিষ্যত কামনা করেন।

এসময় প্রতিষ্টানের পক্ষ থেকে ফ্রান্স প্রবাসীদের কে শুভেচ্ছা জানানো হয়।পরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। কোরান তেলায়াত ও দোয়া মাহফিল পরিচলা করেন ওভার ভিলা বাংলাদেশ জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা নুরুল ইসলাম।

বিস্তারিত

লন্ডনে উপমন্ত্রী জয়ের ওপর বিএনপির হামলা

লন্ডনে যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা-কর্মীদের হামলার শিকার হয়েছেন ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। বুধবার স্থানীয় সময় বিকেলে ওয়েস্টমিনস্টারের দ্বিতীয় কুইন এলিজাবেথ কনফারেন্স সেন্টারের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাজ্য সফরের সময়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা-কর্মীরা এলিজাবেথ কনফারেন্স সেন্টারের সামনে বিক্ষোভ করছিলেন। ওই বিক্ষোভ থেকে উপমন্ত্রী জয়ের ওপর হামলা হয়। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে বর্তমানে লন্ডনে অবস্থান করছেন।

বুধবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে তিনটা থেকে দ্বিতীয় কুইন এলিজাবেথ কনফারেন্স সেন্টারে সরকারপ্রধানদের বৈঠকে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তখন কনফারেন্স সেন্টারের বাইরে বিক্ষোভ করছিলেন যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা-কর্মীরা। পাশেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরকে স্বাগত জানিয়ে স্লোগান দিচ্ছিলেন যুক্তরাজ্য শাখা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় হেঁটে সম্মেলন স্থলে যাওয়ার সময়ে হঠাত বিএনপির কিছু নেতাকর্মী তার ওপর হামলা করে। এসময় উপমন্ত্রী জয়কে উদ্দেশ করে কটু মন্তব্যও করা হয়। হামলাকারীরা উপমন্ত্রীকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করার সময়ে আরিফ খান পাশের বারক্লেস ব্যাংকের সামনে গিয়ে আশ্রয় নেন। হামলাকারীরাও তার পিছু নেন। পরে বিএনপির কিছু নেতা–কর্মী তাকে উদ্ধার করেন।

যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক হামলার ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘আমরা বিক্ষোভ করার সময় আওয়ামী লীগের লোকজন আমাদের কাছে আসেন না। তিনি (আরিফ খান জয়) কেন আসলেন, আমরা বুঝলাম না।’

এ ঘটনায় মারুফ ও বাপ্পি নামে দুজনকে পুলিশ আটক করেছে বলে তিনি জানান।

যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক বলেন, ‘বিদেশের মাটিতে বিএনপি যে ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে, তার নিন্দা জানানোর ভাষা খুঁজে পাওয়া কঠিন। তারা আবারও প্রমাণ করল, প্রচলিত রাজনীতির সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা কেবলই সন্ত্রাসী সংগঠন।’
বিস্তারিত

ভ্রমণ ভিসার সুযোগ পাবে দুবাইতে ট্রানজিট নেয়া যাত্রীরা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সবকটি এয়ারপোর্টে ট্রানজিট নেয়া উড়োজাহাজ যাত্রীদের জন্য ভ্রমণ ভিসা সুযোগ করে দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশটির মন্ত্রী পরিষদ।

ভ্রমণ প্রেমী যাত্রীরা এই ভিসার মাধ্যমে দেশটির বিখ্যাত বিভিন্ন পর্যটন স্থান ঘুরে দেখার সুযোগ পাবেন। পর্যটন শিল্পকে আরো চাঙ্গা করতেই ট্রানজিটে আটকা পড়া যাত্রীদের এই সুযোগের নীতিমালা গ্রহণ করেছে দেশটির প্রশাসন।

পর্যটন শিল্পের মাধ্যমে অর্নৈতিক সমৃদ্ধির উপর ইতিবাচক প্রভাব রাখতে নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করতে দেশটির মন্ত্রী পরিষদ একটি ওয়ার্ং কমিটি গঠন করা হয়।

২০১৭ সালের এক জরিপে দেখা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের এয়ারপোর্টে আসা মোট যাত্রীর প্রায় ৭০ শতাংশই ট্রানজিট যাত্রী। নতুন নীতিতে থাকছে ভিসা ফি তালিকা প্রণয়ন ও পর্যটক বৃদ্ধি এবং দেশটির পর্যটন শিল্পকে আরো আকর্ষনীয় করে গড়ে তোলা।

বিস্তারিত

রোহিঙ্গা সংকটের আশু সমাধান চায় বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সংকটের আশু সমাধান চেয়ে বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে সম্প্রতি নির্যাতনের মাধ্যমে বিতাড়িত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর পুরো চাপ বাংলাদেশ একাই সামলাচ্ছে।

লন্ডনে মঙ্গলবার ওভারসিজ ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে (ওডিআই) ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন গল্প : নীতি, অগ্রগতি ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এ সংকটের শান্তিপূর্ণ, টেকসই ও আশু সমাধান চায়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনী দমন অভিযান শুরু করার পর বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর লোকদের সংখ্যা এখন ১১ লাখ। বাংলাদেশ মানবিক বিবেচনায় তাদের আশ্রয় দিয়েছে।’

শেখ হাসিনা সরেজমিনে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করে রোহিঙ্গাদের দুর্দশা নিজ চোখে দেখেছেন উল্লেখ করে বলেন, ‘অনেক বিশ্ব নেতা কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের অস্থায়ী আশ্রয় শিবির পরিদর্শন করেছেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিগত কয়েক বছরে সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বিশাল সাফল্য অর্জন করা সত্ত্বেও এই সাফল্যকে টেকসই করতে হলে বাংলাদেশকে আরো অনেক চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের সাফল্যের মানে এই নয় যে, আমাদের সামনে কোনো চ্যালেঞ্জ নেই। বাংলাদেশের ভেতর ১০ লক্ষাধিক দেশান্তরী মিয়ানমার নাগরিকের অভিবাসনের পাশাপাশি আমরা জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব, সন্ত্রাসবাদ ও সহিংস উগ্রবাদ মোকাবিলায় লড়াই করছি।’

জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জলবায়ু দূষণে খুবই নগণ্য ভূমিকা সত্ত্বেও প্রাকৃতিক দুর্যোগের সবচেয়ে মারাত্মক শিকারে পরিণত হওয়ায় জলবায়ু পরিবর্তন আমাদের জন্য অন্যতম প্রধান চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের লাখ লাখ মানুষ স্থানচ্যুত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের এই গ্রহ, আমাদের জীববৈচিত্র্য এবং আমাদের জলবায়ু সুরক্ষিত করা বিশ্ব সম্প্রদায়ের অভিন্ন দায়িত্ব।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব প্রশমন ও ব্যবস্থাপনার জন্য বাংলাদেশ ডেল্টা প্লান-২১০০ প্রণয়নের প্রক্রিয়ায় রয়েছে।’

সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গিবাদ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা জানান, বাংলাদেশ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছে। তার দল ২০০৯ সালে যখন ক্ষমতায় আসে, তখন রাজনৈতিক অস্থিরতা, জঙ্গিবাদের উত্থান, প্রাকৃতিক দুযোর্গ, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি এবং বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দাসহ অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক নানা সংকট মোকাবিলা করতে হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা ভবিষ্যৎ বাংলাদেশের জন্য আমাদের রোডম্যাপ ভিশন-২০২১ প্রণয়ন করেছি। দীর্ঘ, মধ্য ও স্বল্প মেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমরা ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্য আয়ের দেশে রূপান্তর করতে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করি।’

তিনি জানান, তার সরকার ষষ্ঠ পঞ্চম বার্ষিকী পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করছে। এতে পল্লীর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে এবং পল্লী এলাকায় কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে এসএমইর জন্য তহবিল সংগ্রহ করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বে দ্বিতীয় বৃহত্তম তৈরি পোশাক রপ্তানিকারক দেশ। আমাদের পোশাক কারখানাগুলোকে নিরাপদ করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশে ৬৭টি লিড সনদধারী তৈরি পোশাক কারখানা রয়েছে। সাতটি পরিবেশবান্ধব কারখানা ও বস্ত্র কারখানা রয়েছে।’

পররাষ্ট্র নীতির উল্লেখ করে তিনি বলেন, তার সরকার ব্যবসা বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং কূটনৈতিক সহযোগিতা বাড়ানোর লক্ষ্যে সকল দেশের সঙ্গে বিশেষ করে প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক জোরদারে সবোর্চ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘রুপান্তরযোগ্য প্রযুক্তির জন্য আমাদের জ্ঞান ও ইনোভেশন অংশীদারিত্বের প্রয়োজন। আমরা জীবন যাত্রার মান উন্নত করেছি।’

তথ্যসূত্র : বাসস
বিস্তারিত

তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী

লন্ডন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও দন্ডিত ব্যক্তি তারেক রহমানকে যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের মুখোমুখি করার অঙ্গীকার করেছেন।
 
মঙ্গলবার বিকেলে এখানে ওভারসিজ ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে (ওডিআই) ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন গল্প : নীতি, অগ্রগতি ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে মূল বক্তা হিসেবে ভাষণ দেয়ার পর প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমরা যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলছি এবং অবশ্যই একদিন আমরা তাকে দেশে ফিরিয়ে আনবো। তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।
 
তারেক রহমানের মতো একজন দণ্ডিত ব্যক্তিকে আশ্রয় দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্য সরকারেরও সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাজ্য একটি অবাধ স্বাধীনতার দেশ এবং এটি সত্যি যে, যে কোন ব্যক্তি এখানে আশ্রয় নিতে এবং শরণার্থী হতে পারে। তবে তারেক রহমান অপরাধের কারণে আদালত কর্তৃক একজন দণ্ডিত ব্যক্তি। আমি বুঝতে পারি না, একজন দন্ডিত ব্যক্তিকে কিভাবে যুক্তরাজ্য আশ্রয় দিয়েছে।’
 
রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, তাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ মিয়ানমারের প্রতি বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ দেখিয়ে আসছে।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মন্ত্রীরা উভয় দেশ সফর করেছেন। সংকটের সমাধান খুঁজে বের করতে আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমারের সকল প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।
তিনি বলেন, মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আগ্রহ দেখালেও বাস্তবে তারা কিছুই করেনি। তাই আমরা চাচ্ছি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এ ব্যাপারে মিয়ানমারের ওপর আরো চাপ সৃষ্টি করুক। বাসস
বিস্তারিত

জাপানে মুজিবনগর দিবস উদযাপন

আজ ১৭ এপ্রিল, ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস। যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালন করেছে জাপানের টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

মঙ্গলবার দূতাবাসের সেকেন্ড সেক্রেটারি (প্রেস) শিপলু জামান এই তথ্য জানিয়েছেন।

সকালে দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চার নেতা ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। পরে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকার প্রধানের বাণী পাঠ করে উপস্থিত সবাইকে শোনানো হয়। এ ছাড়া দিবসটি উপলক্ষে একটি ভিডিও তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

আলোচনায় জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেন, ১৭ এপ্রিল তথা মুজিবনগর দিবস আমাদের জাতীয় জীবনে অনন্য দিন, দেশের আইনগত সূচনা হয় এই মুজিবনগর বা তৎকালীন কুষ্টিয়া জেলার মেহেরপুর মহাকুমার বৈদ্যনাথতলা থেকে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মাটিতে বিদেশি সাংবাদিক ও বন্ধুদের উপস্থিতিতে সরকার গঠন বাংলার মুক্তিকামী জনগণকে যুদ্ধ করে বিজয় ছিনিয়ে আনতে অনুপ্রাণিত করে। ভৌগলিক ও কৌশলগত কারণে মুজিবনগর ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা ঘোষণার পর মুজিবনগর সরকার গঠনের মধ্য দিয়ে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ সারা বিশ্বের কাছে নিজের পরিচয় জানান দেয়। তাই দিবসটির গুরত্ব অপরিসীম।

অন্যান্য আলোচক দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন, সেদিন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর অস্ত্রভয় উপেক্ষা করে আমাদের বীর জাতীয় নেতারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেন এবং সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপরাষ্ট্রপতি, তাজউদ্দীন আহমেদকে প্রধানমন্ত্রী এবং এ.এইচ.এম কামরুজ্জামান ও এম. মুনসুর আলীকে মন্ত্রীসভার সদস্য করে শপথ গ্রহণ ও স্বাধীন বাংলার অস্থায়ী সরকার গঠন করেন। মূলতঃ এখান থেকেই স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকারের পথ চলা শুরু হয়। বঙ্গবন্ধুর নামে নামকরণ করা মুজিবনগর তাই বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার কাউন্সিল নোটিশ বাতিল

পূর্ব লন্ডনের সিডনী ষ্ট্রীটে আওয়ামী লীগ নেতা আফসার খান সাদেকের বাসার সামনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের আদেশ বাতিল করে দিয়েছে কমিউনিটি ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের পরিকল্পনা পরিদর্শক বিভাগ। শুক্রবার কাউন্সিল আদেশ বাতিলের পরিকল্পনা পরিদর্শক বিভাগের সিদ্ধান্ত সম্বলিত চিঠি তাঁর হাতে এসে পৌছেছে বলে সত্যবাণীকে জানান আফসার খান সাদেক।

নিজস্ব অর্থায়নে নিজ ঘরের সামনে আফসার খান সাদেক বঙ্গবন্ধুর এই ভাস্কর্যটি স্থাপনের পর থেকেই বিপুল সংখ্যক মানুষ এখানে এসে বাঙালী জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসছিলেন। এক পর্যায়ে আবাসিক এলাকায় প্রচলিত নিয়ম মেনে এই ভাস্কর্য স্থাপন হয়নি, এমন অভিযোগ করে তা সরিয়ে ফেলতে কাউন্সিলের কাছে দাবি জানান কতিপয় বাসিন্দা।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে গত বছরের ১৫ই মার্চ প্লানিং পারমিশন নিয়ে ভাস্কর্যটি স্থাপিত হয়নি জানিয়ে তা সরিয়ে ফেলতে আফসার খান সাদেককে নোটিশ দেয় টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল। যথাযথ অনুমতি নিয়েই ভাস্কর্য স্থাপন করেছেন, এমন দাবি করে নোটিশের বিরুদ্ধে আফসার খান সাদেক কমিউনিটি ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের পরিকল্পনা পরিদর্শন বিভাগে আপিল করলে সাদেকের প্রতিনিধি মিস্টার জনাথন রাইটের কাছ থেকে পরিকল্পনা পরিদর্শক বিভাগ ভাস্কর্যটির বিস্তারিত তথ্য সম্পর্কে অবহিত হয়।

এই তথ্যের সত্যমিথ্যা যাচাইয়ে জন্য গত বছরের ২৮ নভেম্বর কমিউনিটি ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের নিয়োগকৃত পরিদর্শক ক্রীস প্রেষ্টন ভাস্কর্যস্থান পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে তথ্য-উপাত্ত যাচাই বাচাই করে চলতি বছরের ১১ই জানুয়ারী বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য সঠিকভাবেই বসানো হয়েছে বলে সিদ্ধান্ত দিয়ে এটি সরিয়ে নেয়ার কাউন্সিল নোটিশ বাতিল করে দেন কমিউনিটি ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের নিয়োগকৃত এই পরিদর্শক।

এদিকে, ভাস্কর্য সরানোর কাউন্সিল নোটিশ বাতিল হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে এর প্রতিষ্ঠাতা আফসার খান সাদেক সত্যবাণীকে বলেন, যথাযথ অনুমতি নিয়েই আমি বাঙালী জাতীর জনকের এই ভাস্কর্য স্থাপন করার পরও একটি স্বার্থান্বেষী মহল এটি সরিয়ে দিতে শুরু থেকেই ষড়যন্ত্র করছিলো। আল্লার অসীম রহমতে তারা সফল হতে পারেনি। তিনি বলেন, বহির্বিশ্বে প্রথম স্হাপিত বঙ্গবন্ধুর এই ভাস্কর্য। প্রতিদিন বিপুল সংখ্যক দেশি-বিদেশী পর্যটক বাঙালী জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এখানে ছুটে আসে।

সাদেক জানান, এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ইংল্যান্ডের বিখ্যাত ট্যুর গাইড ব্লুবেইজ, হেরিজেকসনে স্হান করে নিয়েছে। ফলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত দর্শনার্থীরা প্রতিদিন আসেন বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানাতে।

তিনি ধন্যবাদ জানান স্থানীয় সরকারের নিয়োগকৃত পরিকল্পনা পরিদর্শক এবং বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ হাইকমিশন, লন্ডন ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহানাকে, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য রক্ষায় পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে ভূমিকা রেখেছেন।

আফসার সাদেক বলেন, ‘১৯৬৫ সালে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডি আততায়ীর হাতে নিহত হওয়ার পর তার ভাই রবার্ট কেনেডি লন্ডনের মারলিবর্ন রোডে নিজ বাড়ির সামনে তাঁর ভাস্কর্য স্হাপন করেছিলেন, যেখানে এখনও শ্রদ্ধা জানায় মানুষ। আমি বিশ্বাস করি ব্রিটেনে বেড়ে ওঠা আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম ও মাল্টিকালচারাল এই সোসাইটির অনেকেই বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকেও এভাবে শ্রদ্ধা জানাতে আসবে এই ভাস্কর্যে।

বিস্তারিত

ওয়াশিংটনে ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলীর নববর্ষ বরণ

বাংলা আর বাঙালি সংস্কৃতিকে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে দিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে তুলে ধরবার দীপ্ত অঙ্গীকারের মধ্যে দিয়ে ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠিত হল ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলীর বর্ষবরণ বৈশাখী মেলা ১৪২৫। বিশ্বায়নের বাস্তবতায় বাঙালির আত্মপরিচয় তালাশের আহবানে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনের অদূরে নয়নাভিরাম পোটম্যাক নদীর তীরে অবস্থিত ভার্জিনিয়ার আর্লিংটনস্থ গেটওয়ে পার্কে অনুষ্ঠিত হল এই বৈশাখী মেলা ১৪২৫।

লেখক সাংবাদিক শিব্বীর আহমেদ ও সারা তান্নীর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত এই বৈশাখী মেলায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের ডেপুটি মিশন প্রধান মাহবুব হাসান সালেহ। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দীনের স্ত্রী মিসেস ইয়াসমিন জিয়াউদ্দীন, ভয়েস অব আমেরিকা বাংলা বিভাগের প্রধান রোকেয়া হায়দার।

এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আর্লিংটন কাউন্টি বোর্ড সুপারভাইজার কেইট ক্রিষ্টাল, কংগ্রেস প্রার্থী এলিশন ফ্রাইডম্যান, কংগ্রেস প্রার্থী জাসমিন মোয়াদ, ও মুসলিম ককাস অব আমেরিকার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি গাজালা সালাম।

আর্লিংটনের গেটওয়ে পার্কে ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলী ১৪২৫ বঙ্গাব্দ বরণ করেছে। বিকাল প্রায় সাড়ে তিন ঘটিকার সময় সম্মিলিত কণ্ঠে ”এসো হে বৈশাখ” সংগীত পরিবেশনার মধ্যে দিয়ে বৃহত্তর ওয়াশিংটন প্রবাসীরা স্বাগত জানান পহেলা বৈশাখকে। লাল হলুদ সবুজ সহ বিভিন্ন রঙ বেরঙের পোশাকে এ সময় উপস্থিত দর্শক শ্রোতা ও শিল্পীবৃন্দ সুর-ছন্দ আর তাল-লয়ে বৈশাখের বন্দনা করে স্বাগত জানান নতুন বছর ১৪২৫-কে। তাদের সে আয়োজনে ছিলো বৈশাখের মগ্নতা, হৃদয়ে নতুনকে কাছে পাবার তৃষ্ণা আহবান। ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে সকলের অংশগ্রহণ ও উচ্ছ্বাসে আরো দীপ্ত হয়ে উঠে নতুন বছর ১৪২৫ এর প্রথম দিন।

অনুষ্ঠানে একক সঙ্গীত, দলীয় সঙ্গীত ও নৃত্যে অংশগ্রহণ করে শান্তানু বড়ুয়া, এরিকা, বৃষ্টি, জাফর বাউল (মেট্র), শিল্পী রোজারীও, পিটার, সান্দ্রা, মনীষা, রিতা, শেরিল, সামান্তা, এলিজাবেথ, সারা, রাফি, দিপ্তী, উৎপল বড়ুয়া, বনানী চৌধুরী, অংকিতা, অবন্তী, সুস্মিতা ও অতশী। অনুষ্ঠানের শব্দ নিয়ন্ত্রণে ছিলেন শিশির, কিবোর্ড সৌমি, ড্রাম ক্যানী, গীটার তুর্ঘ, তবলা আশীষ, বেইজ নাফিস ও রাফি, এবং অক্টোপ্যাড প্রান্তিক। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন আবু রুমি, শামসুন পারভিন, আকতার হোসাইন, ও ফাহমিদা শম্পা।

অনুষ্ঠানের গ্রান্ড স্পন্সর ডাটা গ্রুপ, গোল্ডেন স্পন্সর ইএন্ডআর হেলথ, কবির পাটোয়ারী ও পারভিন পাটোয়ারী, গো ঢাকা ডট কম, অলষ্টেট মোহাম্মদ আলী, রিয়েষ্টেট আবু তারেক ও মাসুদ, ঘরের খাবার, কাবাব কিং মোহাম্মদ হোসাইন, ই এন্ড আর ট্যাক্স, আয়কর বিশেষজ্ঞ সালাউদ্দীন ইয়াহিয়া প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কমিউনিটিতে বিশেষ অবদানের জন্য অ্যান্থনী পিয়ুষ গোমেজ, সুবীর কাশ্মীর পেরেরা, ফকির সেলিম, রাজিব বড়ুয়া, বিপ্লব দত্ত, কচি খান, বনানী চৌধুরী, শিল্পী রোজারীও, করিম সালাউদ্দীন ও মোস্তফা হোসাইন মুকুলকে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিশেষ অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন শামসুন পারভিন ও ফাহমিদা হোসাইন।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেন। এ সময় ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলীর দুই কর্মকর্তা আবু রুমি ও আকতার হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।

মেলায় প্রায় চল্লিশটিরও বেশি ষ্টল বসে। ষ্টলগুলোতে শাড়ী চুড়ি দেশীয় পোশাক, পণ্য, খেলনা ও খাবার সহ নানাবিধ জিনিষপত্রের সমাহার ছিল। স্টলগুলোতে দিনভর মানুষের উপচে পড়া ভিড় ছিল লক্ষণীয়। অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নিউইয়র্ক থেকে আগত শফিক ঢোলকীয়, কলকাতা থেকে আগত শিল্পী প্রিয়ংকদা ব্যানার্জী এবং বাংলাদেশ থেকে আগত বাউল শিল্পী নাসিমা দেওয়ান।

অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ নাসিমা দেওয়ান বুড়ি হইলাম তোর কারণে, সোনা বন্ধু ভুইলনা আমারে, সাধের লাউ, তোমার লেখা গান আমি গাইব, বন্ধু বিনে পাগল মনে, আমায় ঘর ছাড়া করিল মরার কোকিলে ইত্যাদি জনপ্রিয় গানগুলো প্রায় ঘণ্টা ধরে পরিবেশন করেন। এ সময় শফিক ঢোলকীয়ার ঢোলের তালে তালে আর গানে গানে ওয়াশিংটন প্রবাসী বাঙালিরা গানের তালেতালে নেচে গেয়ে আনন্দ করেন। সন্ধ্যা প্রায় সাড়ে আট ঘটিকার সময় ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলীর কর্মকর্তা আবু রুমি ও আকতার হোসাইন সবাইকে আবারো নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
বিস্তারিত

সৌদিতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৮ বাংলাদেশি নিহত

সৌদি আরবের রিয়াদে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আটজন বাংলাদেশি মারা গেছে এবং পাঁচজন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে আছেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ১০টায় রিয়াদ বিমানবন্দর সংলগ্ন নূরানী ইউসিভার্সিটিতে কর্মরত অবস্থায় গ্যাস সিলিংন্ডার বিস্ফোরণে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। রিয়াদ থেকে প্রত্যক্ষদর্শীরা এ ঘটনা জানান।

নিহতদের মধ্যে নরসিংদীর সদর উপজেলার মাধবদী থানার কাঁঠালিয়া ইউনিয়নের আবুল হোসেনে ছেলে রবিন (২২)। এ মর্মান্তিক খবর শুনে তাদের বাড়িতে শোকের মাতম চলছে।

নিহত রবিনের চাচা নবী হোসেন ও চাচাতো ভাই রায়হান জানান, গত তিন মাস হয় রবিন প্রবাসে পারি জমায়। এদিকে তার মৃত্যুর খরব পেয়ে রবিনের বাবা আবুল হোসেন বারবার মুর্ছা যাচ্ছেন।

আহতেদের মাঝে নরসিংদীর ডাঙ্গা ইউনিয়নের মাঝের চরের পাভেল (২২) এবং ঢাকার খোরশেদ (৫০) গুরুতর আহত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

বিস্তারিত

মালয়েশিয়ায় লিফট ছিঁড়ে ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু

মালয়েশিয়ায় বিল্ডিংয়ে কাজ করার সময় লিফট ছিঁড়ে তিন বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার বিকেল ৫টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন,  বেনাপোলের ধান্যখোলা গ্রামের আয়নাল হকের ছেলে তরিকুল ইসলাম তরিক (৩২), শার্শার শ্যামলাগাছি গ্রামের আবু তালেবের ছেলে আজমিন হোসেন (২৬) যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ছোট-পোদেউলিয়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে সালাউদ্দিন (৪২)।

এদিকে নিহতের সংবাদ পেয়ে তাদের বাড়িতে নেমেছে শোকের ছায়া।

নিহতদের স্বজনরা জানান, মালয়েশিয়ার জোহরবারু ফরেস্ট সিটিতে টিওআইসি কোম্পানির নির্মাণাধীন ৫০ তলা বিল্ডিং এ লিফট তৈরির জন্য কাজ করছিলেন তারা। ৩২ তলায় লিফটের কাজ করার সময় লিফট ছিঁড়ে ৩ জন বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলেই।

মৃত্যুর খবর শুনে নিহতদের বাড়িতে ছুটে যান শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মণ্ডলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিরা। ইউএনও দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে খোঁজ খবর নেন। মরদেহ বাড়ি ফিরিয়ে আনতে সরকারি ভাবে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে বলে জানান তিনি।


বিস্তারিত

মালয়েশিয়ায় ৭ বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ায় সাত বাংলাদেশিসহ আটজনকে আটক করেছে মালয়েশিয়ার কাস্টমস অধিদপ্তরের পুলিশ।

আটকদের সাত বাংলাদেশিকে অভিবাসন আইন ভঙ্গ করার অপরাধে অভিবাসন বিভাগে সোপর্দ করা হয়।

শুক্রবার কাস্টমস ডিপার্টমেন্টের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল দাতুক জুলকিফুল ইয়াহিয়া এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

এতে জানানো হয়, মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গর প্রদেশের সুবাং জায়া এলাকার একটি গুদামে অভিযান চালিয়ে ৪০০ বস্তা মাদক উদ্ধার করা হয়।

অভিযানের সময় আট শ্রমিককে ওই গুদামে কাজ করতে দেখেন। তারা একটি কন্টেইনার থেকে মাদক ভর্তি বস্তাগুলো বের গুদামে রাখছিলেন। আটজন শ্রমিকের মধ্যে সাতজন বাংলাদেশি ও একজন স্থানীয় নাগরিক রয়েছে।

মাদক বিভাগের কর্মকর্তারা বস্তাগুলো খোলার পরেই সেগুলোর ভেতর মাদকদ্রব্য দেখতে পান এবং তারা ধারণা করেন, মাদকগুলো ভারতের চেন্নাই হয়ে মালয়েশিয়ার পোর্ট ক্লাং বন্দর দিয়ে প্রবেশ করে।

বিস্তারিত

ব্রুনাই সরকারের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশি ‘ব্যুত্থান’

ব্রুনাই ব্যুত্থান এসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের মাঝখানে ইউরী বজ্রমুনি।

ক্রীড়া ডেস্ক: বাংলাদেশের আত্মরক্ষামূলক ক্রীড়া ‘ব্যুত্থান’ ব্রুনাইয়ে জাতীয় পর্যায়ে স্বীকৃতি লাভ করেছে। গত বৃহস্পতিবার দেশটির যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রণালয় আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা দেয়। ব্রুনাইয়ে অবস্থানরত বর্তমান বিশ্বে ব্যুত্থানের প্রাণপুরুষ ইউরী বজ্রমুনিগতকাল শুক্রবার বিকেলে এ তথ্যটি নিশ্চিত করেন।

ব্যুত্থানের স্বীকৃতির মাধ্যমে উভয় দেশের ভ্রাতৃত্ব ও পররাষ্ট্র সম্পর্কিত আবস্থান আরো উন্নত হবে বলে সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।গ্র্যান্ড মাস্টার  ইউরীর বজ্রমুনী  উদ্যোগে এবং আন্তর্জাতিক ব্যুত্থান ফেডারেশনের তত্ত্বাবধানে ব্যুত্থান আজ পৃথিবীর বহু দেশে স্বীকৃতি লাভ করেছে এবং এই খেলার প্রসার এবং জনপ্রিয়তার লক্ষে তিনি কাজ করে চলেছেন। এই বিষয়ে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ)সহ ব্রুনাইতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসও যথাযথ ভূমিকা পালন করে।

ইউরী বজ্রমুনি বিশ্ব- রেকর্ডকারী আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ও পৃথিবীর শীর্ষস্থানীয় মনো-দৈহিক চর্চার ক্ষেত্রে একজন অনন্য পথিকৃৎ। ডিসকভারী চ্যানেল বৈজ্ঞানিক গবেষণা দল তাকে বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ সুপার হিউম্যান বা অতিমানবদের অন্যতম হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

ব্রুনাই থেকে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সম্প্রতি ব্রুনাই সরকার কর্তৃক ব্যুত্থান মার্শাল আর্ট ও ক্রীড়া পদ্ধতির জাতীয় পর্যায়ে স্বীকৃতি লাভের পরিপ্রেক্ষিতে ব্রুনাই ব্যুত্থান এসোসিয়েশনের পক্ষে একটি সভা ডাকা হয় এবং এতে উপস্থিত থাকেন ব্যুত্থান এসোসিয়েশনের কর্মকতাবৃন্দ এবং ব্যুত্থানচারীগন। উল্লেখ্য ব্যুত্থানবাংলাদেশের একটি আত্মরক্ষামূলক ক্রীড়া যাকে প্রধানত আত্মশুদ্ধির খেলা নামে অভিহিত করা হয়। ব্যুত্থান একটি সংস্কৃত শব্দ থেকে আসা বাংলা শব্দ।যার অর্থ ‘স্বাতন্ত্রের সাথে প্রতিরোধ’।

ইতিমধ্যে ব্যুত্থান ব্রুনাইয়ের বিভিন্ন জেলায় তার কার্যক্রম শুরু করেছে।স্থানীয় ছাত্রছাত্রীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নাগরিকদের পক্ষ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। ব্রুনাইয়ের এই স্বীকৃতি বাংলাদেশ বা বাংলাদেশের ক্রীড়া ক্ষেত্রে একটা উল্লেখযোগ্য আন্তজার্তিক পদক্ষেপ বলা যায়। যেখানে বাংলাদেশের খেলা ব্যুত্থান অন্যান্য দেশেও প্রসারের মাধ্যমে দেশের ভাবমর্যাদাকে তুলে ধরার পাশাপাশি আমাদের দেশীয় খেলা প্রসারের আলো দেখতে পাচ্ছে।

পর্যায়ক্রমে ব্যুত্থান দেশটির বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও অনুশীলন শুরু করার বিষয়ে কর্মসূচি গ্রহন করছে ব্রুনাই ব্যুত্থান এসোসিয়েশন। উল্লেখ্য ব্রুনাই ব্যুত্থান এসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হলেন ইয়াংবার হুরমাত মুহাইমেন এবং সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ সামসুল। যাদের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বু্রুনাইয়ের বুকে ব্যুত্থানের প্রসার উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ব্যুত্থান পৃথিবীর প্রথম আত্মরক্ষামূলক ক্রীড়া যেখানে সহ:প্রতিযোগিতা বা কো-কম্পিটিশন পদ্ধতির সূচনা করা হয়েছে। যার মাধ্যমে খেলাধুলার জগতে একটা বৈপ্লবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে বলা চলে।

ইউরী বজ্রমুনিবলছেন, ব্যুত্থান শুধু ক্রীড়াই নয়,মানুষের মনো দৈহিক উন্নয়নের পাশাপাশি তার নৈতিক শিক্ষার জায়গায় অনেক বড় গুরুত্ব দিয়ে আসছে। যুব সমাজ গঠনে মাদকবিরোধী সুস্থ সবল জনগোষ্ঠী গঠনে ব্যুত্থান আগামী দিনে রাখতে পারবে অনন্য ভূমিকা।

 
বিস্তারিত

নির্বাচনে প্রার্থী হবার সুযোগ পাচ্ছেন প্রবাসীরা

প্রবাসী বাংলাদেশিদের ভোটার করার পরিকল্পনা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে প্রবাসীরা বিদেশ থেকে ভোটাধিকার প্রয়োগ এবং নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ পাবেন। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে কোটি প্রবাসী বাংলাদেশির স্বপ্ন পূরণ হবে। এ বিষয়ে ১৯ এপ্রিল ৮ দেশে কর্মরত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতকে নিয়ে সেমিনারে বসছে ইসি।

ইসি সূত্র জানায়, একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে প্রবাসীদের ভোটার করতে ১৯ এপ্রিল সেমিনারের আয়োজন করেছে নির্বাচন কমিশন। সেমিনারের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, প্রবাসীদের ভোটার প্রক্রিয়াকে সহজ করতে প্রবাসী সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, সংস্থা, স্টেকহোল্ডার এবং ৮ দেশে কর্মরত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতকে নিয়ে বসবে ইসি। তাদের মতামত ও পরামর্শ নিয়ে প্রবাসীদের প্রবাসে ভোটার করার কার্যক্রম শুরু হবে।

ভোটার তালিকা বিধিমালা, ২০১২ এর ১১ ধারা অনুযায়ী প্রবাসী বাংলাদেশিরা ভোটার ও নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন। ফলে দূতাবাসের মাধ্যমে ভোটার করার উদ্যোগ ইসির সফল হলে কোটির ওপর বাংলাদেশি প্রবাসীর স্বপ্ন পূরণ হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিস্তারিত

নিউইয়র্কে অব ব্রঙ্কসের ২০ বছর পূর্তি উদযাপন

সাখাওয়াত হোসেন সেলিম
নিউইয়র্কে বর্ণিল আয়োজনে উদযাপিত হয়েছে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবস ও বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের ২০ বছর পূর্তি উৎসব। ব্রঙ্কসের ইউনিয়ন পোর্ট রোডের গোল্ডেন প্যালেসে গত ২ এপ্রিল সোমবার আয়োজন করা হয় শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা, স্মৃতিচারণ, আলোচনা, মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনাসহ বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার।



বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের সভাপতি সাহেদ আহমদের সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক আশরাফুল হাসান বুলবুল, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সেবুল খান মাহবুব ও সহ সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরতেই বাংলাদেশ ও আমেরিকার জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আবু কায়সার চিশতি এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন নীলাদ্রী নন্দী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ এবং উদ্বোধক ছিলেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল শামিম আহসান। কীনোট স্পীকার ছিলেন বাংলাদেশ আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট আইনজীবী মোহাম্মদ. এন মজুমদার। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন স্থানীয় এসেম্বলীম্যান লুইস সেপুলভেদা, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনের প্রেসিডেন্ট আবদুস শহীদ, মামুন’স টিউটরিয়ালের প্রিন্সিপাল মূলধারার ম্যাথ টিচার শেখ আল মামুন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহিম বাদশা, অয়েল কেয়ারের সিনিয়র ম্যানেজার সালেহ আহমেদ, বাংলা পত্রিকা সম্পাদক ও টাইম টিভির সিইও আবু তাহের, বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের সাবেক সভাপতি নূরুল আহিয়া, মাহবুব আলম, মো: শামীম মিয়া, সংগঠনের উপদেষ্টা ও সিলেট ডিস্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি জুনেদ আহমদ চৌধুরী, বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান মাস্টার ও মুক্তিযোদ্ধা আবু কায়সার চিশতি, ব্যান্ডস-এর সভাপতি সোলায়মান আলী, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট আলমাস আলী, এস এম গোলাম রব্বানী চৌধুরী, কফিল আহমেদ চৌধুরী, মখন মিয়া, জামাল হুসেন, কেরামত আলী, বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের উপদেষ্টা আব্দুর রব দলা মিয়া, আবদুল মুহিত, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ ইসলাম মামুন, জাহেদ রুমি, পার্কচেষ্টার ব্রঙ্কস রিয়েলিটির প্রেসিডেন্ট সালেহ উদ্দিন, লংজেভিটি হেলথ সার্ভিস এলএলসি’র কো-অর্ডিনেটর ও হাকিম অ্যান্ড কোং মাল্টিসার্ভিসেস’র কর্ণধার রোকন হাকিম, অয়েল কেয়ারের সার্টিফাইড এপ্লিকেশন কাউন্সিলর মান্না মুনতাসির, মেয়র অফিসের তাহিদুন মরিয়ম, ডা. সাদেক, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল বাছির খান, আরবান হেলথ প্ল্যানের কমিউনিটি আউটরিচ কর্মকর্তা মেহেরুন্নেসা জোবায়দা, বাংলাদেশী আমেরিকান উইম্যানস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট রেক্সোনা মজুমদার, মেহের চৌধুরী, নাসরিন চৌধুরী, কামরুন্নাহার রীতা, মনিকা মন্ডল, সুপ্রিয়া নন্দী, মাকসুদা আহমদ, লোকমান হোসেন লুকু, হুমায়ুন চৌধুরী প্রমুখ। মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের ছিলেন সাপ্তাহিক জনতার কন্ঠ এবং ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, টাইম টিভির কমিউনিটি আউটরিচ কর্মকর্তা সৈয়দ ইলিয়াস খসরু, ঠিকানার সিনিয়ার রিপোর্টার ছন্দা বিনতে সুলতানা প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশী কমিউিনিটির নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী উপস্থিত ছিলেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক তৌফিকুর রহমান ফারুক, সৈয়দা মাহমুদা কবির, প্রমুখ।

প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধাদের ক্রেস্ট উপহার দিয়ে সম্মাননা জানান হয়। সম্মাননাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধারা হলেন, মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, অধ্যাপক সৈয়দ মুজিবুর রহমান, খলিলুর রহমান মাস্টার ও আবু কায়সার চিশতি। এছাড়াও নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল শামিম আহসান, সব্যসাচী লেখক কবি জুলি রহমান, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল বাছির খান, সংগঠনের সাবেক সভাপতি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদদের সম্মাননা জানানো হয়।

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের মধ্যে অনুষ্ঠিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে পুরষ্কার বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি সাহেদ আহমদ, সহ সভাপতি তৌকিকুর রহমান ফারুক, সৈয়দা মাহমুদা কবির ও সামাদ মিয়া জাকের, সাধারণ সম্পাদক সেবুল খান মাহবুব, সহ সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, কোষাধ্যক্ষ মো: আলী রাজা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আমিনুল হক (কাজী এনাম), আইন ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক মনিকা মন্ডল, প্রচার সম্পাদক মো: ইমরান আলী, দপ্তর সম্পাদক হুমায়ুন কে সোহেল, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জুলী রহমান, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক নোমান আহমদ, ধর্ম ও সমাজ সেবা সম্পাদক কাজীরুল ইসলাম, সাত্যিক সম্পাদক মো: মারুফ রশিদ, আপ্যায়ন সম্পাদক ফখরুল আলম চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা জেবুন্নেছা হাসান, কার্যকরী সদস্য : মোশাহীদ চৌধুরী, আব্দুল বাছির খান, প্রফেসর আমিনুল হক (চুন্নু), উমা রেশমা, শাহ কামাল, মো: আবাদ হোসেন মোল্লা, ফয়ছল আহমদ চৌধুরী ও ফখরুল ইসলাম।

প্রধান অতিথি কামাল আহমেদ বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের ব্যতিক্রমী নানা উদ্যোগের প্রশংসা করেন। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা জানানোর জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।

উদ্বোধক কনসাল জেনারেল শামিম আহসান বলেন, বর্তমান সরকারের গতিশীল নেতৃত্ব বাংলাদেশ আজ এক অনন্য উচ্চতায়। তিনি মূলধারায় বাংলাদেশীদের সম্পৃক্ত হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, এতে ব্রঙ্কসবাসী অনেক দূর এগিয়ে গেছে। নিউইয়র্ক স্টেট সিনেট ও অ্যাসেম্বলি হাউসে ‘বাংলাদেশ ডে’ উদযাপনে তাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য।
বিস্তারিত

টোকিও ফ্যাশন ওয়ার্ল্ডে বাংলাদেশ

জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে টোকিও ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড-২০১৮। এই ফ্যাশন ওয়ার্ল্ডে এবার বাংলাদেশ থেকে সর্বাধিকসংখ্যক  উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে।

বুধবার জাপানে বাংলাদেশ দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব (প্রেস) মুহা. শিপলু জামান এই তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, সকালে ফিতা কেটে বাংলাদেশি প্যাভিলিয়নের উদ্বোধন করেন জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। পরে তিনি মেলায় বাংলাদেশের স্টলগুলো পরিদর্শন করেন এবং ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেন।

টোকিও বিগ সাইটে অনুষ্ঠিত এই মেলায় বাংলাদেশের ৪৪টি নিটওয়্যার ও চামড়া শিল্প প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য নিয়ে এসেছেন। মেলার বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে নিটওয়্যার কোম্পানিগুলো তাদের উন্নত ও আধুনিক পোশাকসামগ্রী এবং চামড়া প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলো বিভিন্ন রুচিসম্মত ও উন্নতমানের পণ্যের প্রদর্শন করছেন। বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো মেলায় বাংলাদেশি উদ্যোক্তাদের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

অংশগ্রহণকারী ব্যবসায়ীরা আশা প্রকাশ করেছেন, এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করার মধ্যে দিয়ে তারা জাপানিসহ অন্য দেশের ব্যবসায়ীদের সাথে পরিচয়, মতবিনিময় এবং অধিকসংখ্যক ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হবেন। মেলাটি দুই দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে যোগাযোগের অন্যতম প্লাটফর্ম হিসাবে রূপ নিবে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা মনে করেন।

মেলার পাশাপাশি বুধবার মেলার সেমিনার ভেন্যুতে বাংলাদেশের নিটওয়্যার এবং জাপানে বাংলাদেশের নিটওয়্যারের সম্ভাবনা নিয়ে একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ দূতাবাস, জাপান, বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ নিটওয়্যার মেনুফ্যকচারস অ্যান্ড  এক্সপোরটার অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) এবং রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর উদ্যোগে আয়োজিত সেমিনারে সহযোগিতা করে জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গানাইজেশন (জেট্রো), ইউনাইটেড ন্যাশন্স ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইউনিডো), জাপান ও টোকিও চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, জাপান-বাংলাদেশ কমিটি ফর কমার্শিয়াল অ্যান্ড  ইকনোমিক কো-অপারেশন এবং জাপান টেক্সটাইল ইম্পোরটারস অ্যাসোসিয়েশন। শতাধিক জাপানি ক্রেতা প্রতিষ্ঠান সেমিনারে যোগদান করেন।

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।

তিনি বলেন, জাপানে বাংলাদেশি উন্নতমানের পণ্যসামগ্রীর বাজার সম্প্রসারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। এই মেলা জাপান-বাংলাদেশ বাণিজ্য সম্পর্ক আরো গভীর করতে সহায়তা করবে বলে রাষ্ট্রদূত দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিকেএমইএর পক্ষ থেকে বাংলাদেশে নিটওয়্যারের বর্তমান অবস্থা এবং ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা নিয়ে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। এছাড়া নিবন্ধ উপস্থাপনা করেন জেট্রোর সিনিয়র পরিচালক তাকাশি সুজুকি এবং মারুহিসা কোম্পানির প্রেসিডেন্ট মাশাহিরু হিরাইশি। আলোচকরা বাংলাদেশে বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশ এবং বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত সুযোগ সুবিধার কথা সবার কাছে তুলে ধরেন।
বিস্তারিত

বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস কমিশন ইউকে নতুন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস কমিশন যুক্তরাজ্যের সাউথ ওয়েলস রিজিওনের নতুন কমিটির প্রথম সভা গত ৩০ মার্চ ওয়েলসের নিউপোর্ট শহরে অনুষ্টিত হয়েছে।

সংগঠনের ওয়েলস রিজিওনের প্রেসিডেন্ট গোলাম আবু সালেহ সুয়েবের সভাপতিত্বে এবং জেনারেল সেক্রেটারি শাহ্‌ শাফি কাদিরের পরিচালনায় অনুষ্টিত সভার শুরুতেই লন্ডন থেকে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস কমিশন যুক্তরাজ্য শাখার সভাপতি আবদুল আহাদ চৌধুরী।

সভায় প্রধান ও বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ থেকে আগত ‘চ্যানেল এস’ টিভির স্বনামধন্য নাট্যকার ও প্রযোজক খালেদ চৌধুরী।

হিউম্যান রাইটস কমিশন যুক্তরাজ্যের সহ সভাপতি শাহাব উদ্দিন শাবুল, জাস্টিস ফর বাংলাদেশ জেনোসাইড ১৯৭১ ইন ইউকের সভাপতি মকিস মনসুর আহমদ, কমিউনিটি লিডার মাসুদ আহমদ, হিউম্যান রাইটস কমিশন ওয়েলস রিজিওনের ট্রেজারার আব্দুর রউফ তালুকদার, ওয়েলস কৃষকলীগের কনভেনার শেখ মোহাম্মদ আনোয়ার, প্রজন্ম ৭১ এর সভাপতি বেলায়েত হোসেন খাঁন, সোয়ানসী আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান মকবুল, ব্যাবসায়ী নজরুল ইসলাম, যুবনেতা সিতাব আলী, বদর উদ্দিন চৌধুরী বাবর, আব্দুল ওয়াহিদ বাবুল, সিহাব উদ্দিন, মহিউদ্দিন জগনু, লালন রহমানসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিস্তারিত

কেইম্যান আইল্যান্ডের গর্ভনর হিসেবে আনোয়ার চৌধুরীর রাজকীয় অভিষেক

২৬ শে মার্চ, বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে ব্রিটেনের কেইম্যান আইল্যান্ডের গভর্নর হিসেবে শপথ নিয়েছেন বাংলাদেশের কৃতি সন্তান, ঢাকায় নিযুক্ত সাবেক ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত আনোয়ার চৌধুরী। এদিন তাকে রাজকীয় অভ্যর্থনায় বরণ করে নেয় দ্বীপবাসী।

গত বছর যুক্তরাজ্যের ওভারসিজ টেরিটরি কেইম্যান আইল্যান্ডের গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় তাকে। তিনি কেবল প্রথম বাংলাদেশিই নন, প্রথম এশিয়ান হিসেবেই কোনো ব্রিটিশ নাগরিক যিনি ব্রিটিশ নিয়ন্ত্রিত কোনো আইল্যান্ডের প্রধান বা গর্ভনর হিসেবে নিয়োগ পেলেন।

প্রশাসনিক কাঠামো অনুযায়ী, গভর্নর এ দ্বীপের প্রধান। ব্রিটেন থেকে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার মাইল দূরত্বে অবস্থিত এই দ্বীপপুঞ্জের প্রধান বা গর্ভনর নিয়োগ দেওয়া হয় হোয়াইট হল থেকে।

আনোয়ার চৌধুরীকে গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দিয়ে বলা হয়, ২০১৮ সালের মার্চ থেকে কেইম্যান আইল্যান্ডের গভর্নর হেলেন কিল প্যাট্রিকের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

সেই মোতাবেক ২৬ শে মার্চ কেইম্যান আইল্যান্ডের গর্ভনর হিসেবে শপথ নেন তিনি। এদিন সন্ধ্যায় স্থানীয় কেইম্যানের রাজধানী জর্জ টাউনের ডাউন টাউনে কেইম্যানের আইন প্রণয়ণের ক্ষমতাবিশিষ্ট সংসদ ভবনে এই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

শপথ গ্রহণের জন্য সোমবার দুপুরে কেইম্যানের ওয়েন রবার্টস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে আনোয়ার চৌধুরীকে গার্ড অব অনার প্রদর্শন করে রয়েল পুলিশ সার্ভিস, যার নেতৃত্বে ছিলেন পুলিশ কমিশনার ডেরেক ব্রাইন।

এসময় ডেপুটি গভর্নর, সংসদের স্পিকার, বিরোধী দলের নেতা, এমপিসহ আইল্যান্ডের বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

প্লেন থেকে নামার সময়ে আনোয়ার চৌধুরীর কোলে ছিলো তার তিনমাস বয়সি মেয়ে এমিলিয়া । এছাড়া হাত ধরে ছিলেন স্ত্রী মোমিনা চৌধুরী, পিছনে ছিলেন দুই মেয়ে আমানি এবং আব্রিনি।

সোমবার শপথ গ্রহণ শেষে প্রথম ভাষণে গভর্নর আনোয়ার চৌধুরী বলেন, আমি এই দায়িত্ব গ্রহণ করতে পেরে আনন্দিত। আমি এখানে এসেছি আপনাদের সেবার জন্য।

গভর্নর হিসেবে আনোয়ার চৌধুরী তার প্রধান চারটি অঙ্গীকারের কথা তুলে ধরেন, যার মধ্যে রয়েছে, আইল্যান্ডের আইনশৃঙ্খলার উন্নতি, ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের সুরক্ষা, মানবাধিকার নিশ্চিত এবং ইউকের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বজায় রাখা।

সিলেটের কৃতি সন্তান আনোয়ার চৌধুরী বাংলাদেশে ব্রিটেনের হাইকমিশনার ছিলেন। ওখান থেকে ২০০৮ সালে ফিরে এসে আনোয়ার চৌধুরী ২০১১ সাল পর্যন্ত ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিসের ইন্টারন্যাশনাল ইন্সটিটিউশন বিভাগের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে ওই দপ্তরের আরও কয়েকটি পদে কাজ করেন তিনি।

২০১৩ সালে তাকে রাষ্ট্রদূত করে পেরুতে পাঠানো হয়। গভর্নর হিসেবে নিয়োগ পাওয়া আনোয়ার চৌধুরী যে কেইমেন আইল্যান্ডের নেতৃত্ব দেবেন তার আয়তন মাত্র ২৬৪ বর্গ কিলোমিটার। এর রাজধানী জর্জটাউন; লোকসংখ্যা ৬০ হাজার।

প্রশাসনিক কাঠামো অনুযায়ী, গভর্নর এ দ্বীপের প্রধান। ব্রিটিশ সরকারের পরামর্শে রাণী গভর্নর নিয়োগ দেন। আর গভর্নর দ্বীপের প্রশাসন চালাতে নিয়োগ দেন একজন প্রিমিয়ার ও একটি কেবিনেট। বিশ্বের অন্যতম ফাইনানশিয়াল সেন্টার হিসেবে পরিচিত কেইম্যান আইল্যান্ডের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড আবর্তিত হয় ব্যাংকিং, হেজ ফান্ড, বিনিয়োগ এবং ক্যাপ্টিভ ইন্সুরেন্স ও সাধারণ কর্পোরেট কার্যক্রম ঘিরে।

কেইম্যান আইল্যান্ড হলো বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম ব্যাংকিং সেন্টার যেখানে ২৭৯টি ব্যাংক রয়েছে এবং এর মধ্যে ২৬০টি আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ের জন্য অনুমোদিত।
বিস্তারিত

নিউইয়র্কে সাজুফতা সাহিত্য ক্লাবের স্বাধীনতার কবিতানুষ্ঠান

নিউইয়র্কের অন্যতম সাহিত্য সংগঠন সাজুফতা সাহিত্য ক্লাব নিউইয়র্ক স্বাধীনতার কবিতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদযাপন করেছে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবস। স্থানীয় সময় ২৫শে মার্চ রোববার কবি জুলি রহমানের আবাসস্থলে স্বাধীনতার কবিতা অনুষ্ঠানটি উৎসর্গ করা হয় প্রয়াত কবি রফিক আজাদকে।

সাজুফতা সাহিত্য ক্লাব নিউইয়র্ক’র সভাপতি কবি জুলি রহমানের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে ভিন্ন আমেজের এ অনুষ্ঠানটি শুরু হয়।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন কবি এবি এম সালেহ উদ্দিন। প্রথমে কবি শহীদ কাদরীর কবিতা পাঠ করেন নীরা কাদরী। একাধারে স্বরচিত কবিতায় থাকেন কবি রওশন হাসান, হাবীব ফয়েজী, মেহের চৌধুরী, কামরুন্নাহার রীতা, সাধন সিকদার, মাকসুদা আহমদ, মাসুম আহমদ, ড. দলিলুর রহমান, জুলি রহমান, ছন্দা বিনতে সুলতানা। আবৃত্তি শিল্পীদের মধ্যে ছিলেন নিউইয়র্কের বলিষ্ঠ কন্ঠ গোপন সাহা, লুবনা কাইজার, মোঃ ইলিয়াস হোসেন এবং নতুন প্রজন্মের জনম। বাচিক শিল্পীগণ রফিক আজাদের কবিতা কন্ঠে ধারণ করেন এবং তাদের বলিষ্ঠ কন্ঠে অনুষ্ঠানটি হয়ে ওঠে অনন্য প্রাঞ্জল।

সর্বশেষ আকর্ষণ জুলি রহমানের গীতি কাব্য। ঘরের ইঁদুর কাটে দাওয়া নাম যে রাজাকার। এতে তবলায় সংগত করেন আরিফ এবং গানে আহমদ বাবলা সহ জুলি রহমান ও মেহের চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম এবং সাপ্তাহিক জনতার কন্ঠ’র সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, কথাশিল্পী নাসরীন চৌধুরী। কমিউনিটি নেতা আইনজীবী মোহাম্মদ এন মজুমদারের বক্তব্যে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানা হয়। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে টেলিকনফারেন্সে যোগ দেন কবি জুলি রহমানের বড় ভাই কবি ড. দলিলুর রহমান। তিনিও অসাধারণ আবৃত্তি করেন টেলিকনফারেন্সে। অনুষ্ঠানটির বিশেষ বিশেষ অংশ ‘ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম’ এর ফেইসবুকে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়।
বিস্তারিত

ভারতীয় ও নেপালিদের সঙ্গে সংঘর্ষে বাংলাদেশি নিহত

মালয়েশিয়ায় ভারতীয় ও নেপালিদের সঙ্গে সংঘর্ষে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে দুই নেপালি। শনিবার মধ্যরাতে পেটালিং জায়া জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম নিউ স্ট্রেটস টাইমস।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, রাত ১২ টা ৩০ মিনিটের দিকে টিএসবি ১০-এ সড়কে  দুই ভারতীয়, দুই নেপালি ও ১০ জনেরও বেশি বাংলাদেশি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

পেটালিং জায়া জেলা পুলিশের মুখ্য সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ জানি চে দিন জানিয়েছেন, সংঘর্ষ চলাকালে এক বাংলাদেশিকে সেখানে থাকা ড্রেনে ধাক্কা মারে এক হামলাকারী। এতে সে মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। ‘আহত ওই ব্যক্তিকে সুংগাই বুলোহ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই ঘটনায় আরো দুই নেপালি আহত হয়েছেন।’

পুলিশ নিহত ওই বাংলাদেশির পরিচয় জানায়নি। এছাড়া কী নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত সে সম্পর্কেও কোনো তথ্য জানায়নি।

বিস্তারিত

মৌলভীবাজা‌রে সরকারী মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ দ্রুত বাস্তবায়‌নের দা‌বি‌তে লন্ড‌নে সমা‌বেশ

মৌলভীবাজা‌রে সরকারী মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ দ্রুত বাস্তবায়‌নের দা‌বি‌তে লন্ড‌নে  দল-মত নি‌র্বি‌শে‌ষে প্রবাসী মৌলভীবাজার বাসীর সমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে।

স্বত:স্ফুর্ত সমা‌বে‌শে যুক্তরা‌জ্যের বি‌ভিন্ন শহর থে‌কে জেলার সাত উপ‌জেলার বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন।

সোমবার  যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী মৌলভীবাজার জেলাবাসীর উদ্যোগে-মৌলভীবাজার সরকারি মেডিকেল কলেজ দ্রুত প্রতিষ্টার দাবিতে লন্ডনের সুরমা সেন্টারে বিশাল নাগরিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় ।

বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা এম আলাউদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চিপহুইপ উপাধ্যক্ষ  আব্দুস শহিদ ।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডনস্হ বাংলাদেশ হাই কমিশনের হাই কমিশনার নাজমুল কাউনাইন ।

বক্তব্য রাখেন - রাজনীতিবিদ জালাল উদ্দিন, সিতাব চৌধুরী, হারুনুর রশীদ এডভোকেট, কমরেড মসুদ আহমেদ , মৌলভীবাজার জেলার একাটুনা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ অদুদ আলম, টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিলের স্পিকার সাবিনা আক্তার, ক্যামডেন কাউন্সিলের সাবেক মেয়র আব্দুল কাদির, কাউন্সিলর নাদিয়া শাহ, কাউন্সিলর রহিমা রহমান, চ্যানেল এস এর ফাউন্ডার চেয়ারম্যান মাহী জলিল ,বৃটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাসট্রিজ এর ডিরেক্টর জেনারেল সাইদুর রহমান রেনু, বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এসোসিয়েশন ইউ কে'র সম্পাদক অলি খান, সাবেক ছাত্রনেতা -আলকাছ আহমদ, মুজিবুর রহমান জসিম,রুহুল আমিন রুহেল,শিক্ষাবিদ প্রফেসর সহিদুর রহমান, মৌলভীবাজার শিল্পকলা একাডেমী'র সাবেক সম্পাদক নাট্যকার খালেদ চৌধুরী, কিবরিয়া আহমেদ,সৈয়দ মনোহর আলী, আব্দুল হান্নান তরফদার মসুদ, নজরুল ইসলাম অকিব , নজমুল বকস ,সুলতান আহমেদ স্বপন, হেলেন ইসলাম, আবু সালেহ সুয়েব, আব্দুল মুহিত, গোলাম মোরতুজা প্রমুখ ।

সমাবেশ যৌথভাবে পরিচালনা করেন -আব্দুল আহাদ চৌধুরী, মোহাম্মদ আহসান, আব্দুল মালিক, মো. শাহজাহান ।

অনুষ্টা‌নে শুরু‌তে বক্তব্য রা‌খেন সাংবা‌দিক মুন‌জের অাহমদ চৌধুরী।



বিস্তারিত

জিএসসি ইউকের পূর্ণাঙ্গ জাতীয় নির্বাহী কমিটি ঘোষণা

যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সিলেটী প্রবাসীদের সর্ব বৃহৎ সংগঠন গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকের নব নির্বাচিত জাতীয় নির্বাহী কমিটির প্রথম সভা গত ১৮ মার্চ সংগঠনের সদর দপ্তর ১৩৫ কমার্শিয়াল ষ্ট্রীটে অনুষ্ঠিত হয় । সভায় সভাপতিত্ব করেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আতাউর রহমান এবং সঞ্চালনা করেন সাধারন সম্পাদক খসরু খান । এদিন বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে সভায় যোগদান করেন গত ২৫ ফ্রেব্রুয়ারী তারিখে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিজয়ী নব-নির্বাচিত কমিটির সদস্যরা।

সভার শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন সাউথ ইষ্ট রিজিওনের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ জিল্লুল হক । সংগঠনের প্রচলিত নিয়মানুযায়ী হোস্ট রিজিওনের সভাপতি মোহাম্মদ ইছবাহ উদ্দিন আগত নের্তৃবৃন্দকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন । অতঃপর সভার সভাপতি ব্যারিষ্টার আতাউর রহমান সংগঠনের বিঘোষিত নীতি ঐক্য, ভ্রার্তৃত্ব ও সম্প্রীতি সমুন্নত করে- সংগঠনকে আরো কিভাবে গতিশীল করা যায় এবং প্রবাসীদেরকে সেবাদান সহ ন্যায়সঙ্গত দাবীদাওয়া আদায়ে কার্য্যকরি ভূমিকা রাখা যায় তার জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান ।

কার্যকরি কমিটির সভায় বিভিন্ন পদপদবী বন্ঠনের মাধ্যমে জাতীয় নির্বাহী কমিটির বিভিন্ন পদে দায়ীত্ব বন্টন করার লক্ষ্যে সাধারন সম্পাদক খসরু খান সকলকে আলোচনায় অংশ নেওয়ার জন্য আহ্বান জানান । আলোচনার শুরুতেই সংগঠনের সম্মানীত পেট্রন কে এম আবু তাহের চৌধূরী নবনির্বাচিত কমিটির সকল নির্বাচিত নের্তৃবৃন্দকে শুভেচ্ছা ও আন্তরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন । তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন যে নবনির্বাচিত কমিটি জিএসসির ঐতিহ্য, ঐক্য, সম্প্রীতি, ভ্রার্তৃত্ব পূণঃপ্রতিষ্ঠা করে সংগঠনের হারানো মর্য্যাদা ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবে এবং প্রবাসীদের অধিকার সংরক্ষন ও ন্যায়সঙ্গত দাবীদাওয়া আদায়ে এবং সেবা প্রদানে কার্য্যকরি ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবেন । সভায় বিস্তারিত আলোচনা শেষে বিভিন্ন পদে দায়ীত্ব বন্টন করা হয়।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত পূর্ণাঙ্গ জাতীয় নির্বাহী কমিটির নেতৃবৃন্দ যথাক্রমেঃচেয়ারম্যানঃ ব্যারিষ্টার আতাউর রহমান , ভাইস-চেয়ারম্যানঃ- কামরুল হাসান চুনু , মীর্জা আসহাব বেগ , মোহাম্মদ ইছবাহ উদ্দীন , এম, এ, আজিজ , এম, এ, শহীদ চৌধূরী , মোঃ আরজু মিয়া এমবিই , ব্যারিষ্টার মাসুদ আহমদ চৌধূরী , মোঃ ফিরুজ খান , এইচ এম আশরাফ আহমদ ।

সাধারন সম্পাদকঃ খসরু খান , যুগ্ম-সম্পাদকঃ আলহাজ্ব তৌফিক আলী মিনার , ফজলুল করিম চৌধূরী , ব্যারিষ্টার আব্দুল মজিদ তাহের , মোঃ আহসানুজ্জামান আরিফ ।

কোষাধক্ষ্যঃ- মোহাম্মদ সালেহ আহম্মদ , যুগ্ম- কোষাধক্ষ্যঃ মোঃ ইকবাল আহম্মদ চৌধূরী , মোঃ আবুল কালাম । সাংগঠনি সম্পাদকঃ মীর্জা আসকির বেগ, যুগ্ম-সাংগঠনিক সম্পাদকঃ কাইয়ূম খান ফয়ছল,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকঃ সূফি সুহেল আহমেদ, সহ- প্রচার সম্পাদকঃ শাহ মোঃ শাফী কাদির, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদকঃ মন্জুর রেজা চৌধূরী , এমপ্লয়মেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার সম্পাদকঃ কয়ছর মিয়া।

মেম্বারশীপ সম্পাদকঃ এম, এ, গফুর , সহ-মেম্বারশীপ সম্পাদকঃ সীতার আহম্মদ, ইন্টারন্যাশনাল সেক্রেটারীঃ মোঃ জসিম উদ্দিন , স্পোর্টস সেক্রেটারীঃ আব্দুল মালিক কুটি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদকঃ এম, এ, গনি , মহিলা বিষয়ক সেক্রেটারীঃ জোৎস্না ইসলাম , সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদকঃ হেলেনা ইসলাম , যুব বিষয়ক সম্পাদকঃ মুহিব উদ্দিন চৌধূরী । নির্বাহী কমিটি সদস্যঃ- মোঃজাহাঙ্গীর খান , কাজী মোঃ আঙ্গুর মিয়া , ডঃ মুজিবুর রহমান ।

উক্ত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ছাডাও সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক বিভিন্ন রিজিওন থেকে আরো ১২ জনকে কো-অপ্ট করার প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন করা হয় । সভায় বিভিন্ন বিষয়ে প্রবাসীদের সেবাদান ও সাংগঠনিক কার্য্যক্রম বেগবান করার লক্ষ্যে আগামী এক বছরের জন্য আগাম কর্মসূচী গ্রহন করা হয় এবং জাকজমক ভাবে পঁচিশ বছর উদযাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয় । সংগঠনের চ্যারিটি কোর্ডিনেটর ও সাবেক চেয়ারম্যান মুনছব আলী এবং অতিথি হিসাবে জিএসসির সাবেক চেয়ারম্যান ও অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা তো-অর্ডিনেটর আলহাজ্ব এস,এম, আলাউদ্দীন আহম্মেদ বক্তব্য রাখেন । সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সূফী সুহেল আহমেদ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান ।

বিস্তারিত

সাবেক বৃটিশ হাই কমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর পিতৃবিয়োগ

বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক বৃটিশ হাই কমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর পিতা আফরোজ বখত চৌধুরী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি—রাজেউন)।
শনিবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৯টায় তার লন্ডন শহরের রেডব্রিজ এলাকার নিজ বাস ভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত মরহুমের শ্যালক মাহবুবুর রহমান চৌধুরী জানান, মরহুম আফরোজ বখত চৌধুরী বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৯৫ বছর।
রোববার রেডব্রিজ মসজিদে জানাজার নামাজ শেষে তাকে স্থানীয় মুসলিম কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
মরহুম আনোয়ার বখত চৌধুরীর মূল বাড়ি জগন্নাথপুর উপজেলার প্রভাকরপুর গ্রামে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার অব্যাবহিত পরেই তিনি সপবিবারে যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান। কিছুদিন মানচেস্টারের রচডেলে বসবাসের পর তিনি লন্ডনে স্থায়ী হন।
মৃত্যুকালে আফরোজ বখত চৌধুরী স্ত্রী আশরাফুন নেছা চৌধুরী, ৪ ছেলে, নাতি-নাতনীসহ বিপুল সংখ্যক আত্মীয়-গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
মরহুমের বড় ছেলে আনোয়ার বি. চৌধুরী আর্ন্তজাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বৃটিশ কুটনীতিক। আনোয়ার চৌধুরী এর আগে ঢাকায় বৃটিশ হাই কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরুতে বৃটিশ রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। অতি সম্প্রতি আনোয়ার চৌধুরীকে বৃটিশ শাসিত দ্বীপ ক্যামেন আইল্যান্ডে বৃটেনের রাণীর প্রতিনিধি হিসেবে গভর্ণর নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
পিতার রুহের মাগফেরাত কামনায় সবার দোয়া চেয়েছেন সাবেক বৃটিশ হাই কমিশনার আনোয়ার চৌধুরী।
মরহুম আফরোজ বখত চৌধুরীর দ্বিতীয় পুত্র আখতার চৌধুরী পেশায় প্রকৌশলী। তৃতীয় পুত্র আখলাক চৌধুরী লন্ডনের খ্যাতিমান চিকিৎসক ও লন্ডন সেন্টাল হসপিটালে হার্ট সার্জন হিসেবে কর্মরত। মরহুমের ৪র্থ পুত্র একটি বহুজাতিক কোম্পানীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে লন্ডনে কর্মরত।

বিস্তারিত

যুক্তরাজ্যে বর্ণবাদ ও ইসলাম-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ

গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকে’র (জিএসসি) নেতৃবৃন্দের সরব অংশগ্রহণ

লন্ডন প্রতিনিধি :: যুক্তরাজ্যে বর্ণবাদ ও ইসলাম-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ মার্চ শনিবার দেশটির বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে বর্ণবাদ, উগ্রপন্থা, ইসলাম-বিদ্বেষ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতির নিন্দা জানান বিক্ষোভকারীরা।

লন্ডন, কার্ডিফ ও গ্লাসগোর মতো শহরগুলোতে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ‘পানিশ অ্যা মুসলিম ডে’-এর মতো উগ্রবাদী তৎপরতার নিন্দা জানানো হয়। সংহতি জানানো হয় শরণার্থী ও অভিবাসীদের অধিকারের প্রতি। বিক্ষোভকারীরা ‘অভিবাসী ও শরণার্থীদের স্বাগত’, ‘বর্ণবাদী হামলা বন্ধ কর’ প্রভৃতি স্লোগান দেন।

বর্ণবাদবিরোধী সংগঠন ‘স্ট্যান্ড আপ রেসিজম’ এ বিক্ষোভের আয়োজন করে। যুক্তরাজ্যজুড়ে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষ এতে অংশ নেন। অনলাইনে বর্ণবাদী আক্রমণের শিকার লেবার পার্টির দুই এমপি ডেভিড ল্যামি এবং দিয়ানে অ্যাবোট-ও শনিবারের বিক্ষোভে উপস্থিত হন।

এদিকে, ইসলাম ধর্ম বিদ্ধেষী ও বর্ণবাদ বিরোধী জাতীয় বিক্ষোভ কর্মসূচীতে অংশ নেন যুক্তরাজ্যে বসবাসরত প্রবাসী সিলেটবাসীর সর্ববৃহৎ সামাজিক সংগঠন গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকে’র নেতৃবৃন্দরা। সংগঠনের নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় চেয়ারপার্সন ব্যারিষ্টার আতাউর রহমানের নেতৃত্বে তুষারপাত ও প্রচন্ড শীতের বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে তারা এ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকের কেন্দ্রীয় এবং সাউথ ইষ্ট রিজিওন ও ইষ্ট লন্ডন শাখার এম, এ, আজিজ, আব্দুল মালিক কুটি, সূফি সোহেল আহম্মদ, আবুল মিয়া, জিএসসি সদস্য তাজউদ্দীন, মোক্তার আহম্মদ এবং সাউথ ইষ্ট রিজিওন ও ইষ্ট লন্ডন শাখার অন্যান্য নের্তৃবৃন্দ সহ কাউন্সিলার মোঃ শাহ আলম প্রমূখ।

বিক্ষোভকারীগণ প্রথমে বিবিসির সদরদপ্তরের সামনে প্রতিবাদ সভা করেন এবং তুষারপাত উপেক্ষা করে প্রায় দেড় কিলোমিটার দীর্ঘ মিছিল নিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসস্থান ১০ নম্বর ডাউনিং ষ্ট্রিটের সামনে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেন । সমাবেশ শেষে প্রতিবাদকারীদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয় ।

বিস্তারিত

নিউহ্যাম কাউন্সিলে রোকশানা ফাইয়াজ লেবার পার্টির মেয়র প্রার্থী

নিউহ্যাম কাউন্সিলে লেবার পার্টির মেয়র প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তানী বংশোদ্ভূত রোকশানা ফাইয়াজ। তাঁর মেয়র প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ার মধ্য দিয়ে বৃটেনে এই প্রথম এথনিক মাইনোরিটি থেকে একজন নারী নির্বাহী মেয়র নির্বাচিত হওয়ার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছলেন । পাশাপাশি এই বারার দীর্ঘ ২৩ বছরের স্যার রবিন ওয়েলস এর শাসনামলের অবসান ঘটতে যাচ্ছে। নিউহ্যাম কাউন্সিল লেবার পার্টির ঘাঁটি। সেই হিসেবে রোকশানা ফাইয়াজই নির্বাহী মেয়র হওয়া সময়ের ব্যাপার বলে অনেকে মনে করছেন। শুধু নির্বাচন ও আনুষ্ঠানিক ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে ৩ মে পর্যন্ত। মেয়র প্রার্থী নির্বাচনে রোকশানা ফাইয়াজ ভোট পেয়েছেন ৮৬১। আর স্যার রবিন ওয়েলস পেয়েছেন ৫০৩।
ফলাফল প্রকাশের পর এক বিবৃতিতে, লেবার পার্টির মেয়র প্রার্থী মনোনীত করায় বারার দলীয় মেম্বারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানিয়েছেন কাউন্সিলর রুখসানা ফাইয়াজ ওবিই। আগামী মে মাসের স্থানীয় নির্বাচনে নিউহ্যামে লেবার পার্টির নিরঙ্কুশ বিজয় ধরে রাখতে সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রতি গুরুত্ব দেন তিনি।
কাউন্সিলর রুখসানা মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে, তার প্রথম টার্মের ভেতরে প্রায় ১ হাজার কাউন্সিল হোম তৈরীর ওয়াদা করেছেন। এছাড়াও ইয়ূথ হাভ দ্বিগুণ করার পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে একাডেমী এবং সিলভার ট্যানেল স্কীমের বিরোধীতা করবেন বলেও প্রতিজ্ঞা করেছেন তিনি।

বিস্তারিত

  • ‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন
  • শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা
  • বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম
  • বিয়ানীবাজারে জেনোসিডিল সহ যুবক আটক
  • বজ্রপাতের সময়ে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হয়
  • এবার গোপালগঞ্জে বাসচাপায় এক নারী নিহত
  • সিকৃবিতে ‘সেলফ এসেসমেন্ট’ কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত
  • প্রভাষক জুয়েল হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন
  • সিলেটে মশা নিধনে কার্যকর পদক্ষেপের দাবি
  • রাজনগরে গৃহবধূ খুন
  • বাংলাদেশ লোকসংস্কৃতি ফোরাম এর সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি অসিত বরণ
  • ধোপাদিঘীর ‘ক্ষতি নয়,সৌন্দর্যবর্ধন করছে’ সিসিক
  • সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার
  • সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক
  • শাবিতে আসছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান
  • কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩
  • পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেকের লিগ্যাল নোটিশ
  • বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা
  • জাতীয় পার্টিতে বিএনপির অনেক নেতাই যোগ দেবে: এরশাদ
  • সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান
  • মুসলমানরাই সবচেয়ে বেশি সন্ত্রাসের শিকার: বান কি মুন   ৫০৬৯৯
  • ছলনাময়ী নারীদের চেনার উপায়   ১৪৮৯১
  • মেয়র কালামের পায়ের নিচে ওসি আতাউর শার্ট খুলে লিনডাউন,তারপর জুতো পেটার প্রস্তাব   ১৪৭৯৯
  • জুমার নামাজ ছুটে গেলে কী করবেন?   ১৩৪৪৮
  • ​চিনা কোম্পানিকে কাজ দিতে প্রতিমন্ত্রী তারানার স্বাক্ষর জাল   ৯৪৩০
  • জেনে নিন ছুলি দূর করতে কিছু ঘরোয়া উপায়   ৯৩৪২
  • মুসাফির কাকে বলে? মুসাফিরের রোযা ভঙ্গ করলে   ৮৯৩৩
  • ডিমের পর স্বয়ংসম্পূর্ণতার পথে সোনালি মুরগি   ৮৭৭১
  • গরুর দুধের অসাধারণ কয়েকটি গুণ   ৮৪৭৯
  • ঋণখেলাপি নই-হুন্ডি ব্যবসায়িও নই,সম্পত্তি নিলামের খবর অপপ্রচার-নাসির   ৮৪৬০
  • খতমে ইউনুস নামে সামাজে চলে আসা জালিয়াতী   ৭৮৭২
  • মুঘল সম্রাটদের দিনযাপন   ৭০১৮
  • হযরত শাহ্‌ জালাল ইয়েমেনী (রাঃ)-এঁর সংক্ষিপ্ত জীবনী   ৬৪৫৯
  • চিত্রনায়িকা সাহারার সেক্স ভিডিও ফাঁস!   ৬৪২৪
  • ম,আ,মুক্তাদিরের ছেলে রাহাত লন্ডনে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে   ৬৪১০
  • শিশুর কানে আজান দেবে কে?   ৬২৮০
  • প্রশ্নব্যাংকে প্রশ্ন, স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাছাই হয়ে পরীক্ষা   ৫৭৪১
  • কামরূপ-কামাখ্যা : নারী শাসিত যাদুর ভূ-খন্ড   ৫৭৩২
  • ফুলবাড়ির বশর চেীধুরী আজ ইন্তেকাল করেছেন   ৫৬৪৯
  • চিকিৎসায় দ্রুত সরকারি সহযোগিতা চান খাদিজার বাবা মাসুক মিয়া   ৫৪১৯
  • সাম্প্রতিক আরো খবর

  • অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষৎ ও করনীয় শীর্ষক সেমিনার
  • প্যারিসে সবুজ বাংলা বুশারি শপের উদ্ভোধন
  • লন্ডনে উপমন্ত্রী জয়ের ওপর বিএনপির হামলা
  • ভ্রমণ ভিসার সুযোগ পাবে দুবাইতে ট্রানজিট নেয়া যাত্রীরা
  • রোহিঙ্গা সংকটের আশু সমাধান চায় বাংলাদেশ
  • তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • জাপানে মুজিবনগর দিবস উদযাপন
  • বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার কাউন্সিল নোটিশ বাতিল
  • ওয়াশিংটনে ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামেলীর নববর্ষ বরণ
  • সৌদিতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৮ বাংলাদেশি নিহত
  • মালয়েশিয়ায় লিফট ছিঁড়ে ৩ বাংলাদেশির মৃত্যু
  • মালয়েশিয়ায় ৭ বাংলাদেশি আটক
  • ব্রুনাই সরকারের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশি ‘ব্যুত্থান’
  • নির্বাচনে প্রার্থী হবার সুযোগ পাচ্ছেন প্রবাসীরা
  • নিউইয়র্কে অব ব্রঙ্কসের ২০ বছর পূর্তি উদযাপন
  • টোকিও ফ্যাশন ওয়ার্ল্ডে বাংলাদেশ
  • বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস কমিশন ইউকে নতুন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত
  • কেইম্যান আইল্যান্ডের গর্ভনর হিসেবে আনোয়ার চৌধুরীর রাজকীয় অভিষেক
  • নিউইয়র্কে সাজুফতা সাহিত্য ক্লাবের স্বাধীনতার কবিতানুষ্ঠান
  • ভারতীয় ও নেপালিদের সঙ্গে সংঘর্ষে বাংলাদেশি নিহত
  • মৌলভীবাজা‌রে সরকারী মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ দ্রুত বাস্তবায়‌নের দা‌বি‌তে লন্ড‌নে সমা‌বেশ
  • জিএসসি ইউকের পূর্ণাঙ্গ জাতীয় নির্বাহী কমিটি ঘোষণা
  • সাবেক বৃটিশ হাই কমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর পিতৃবিয়োগ
  • যুক্তরাজ্যে বর্ণবাদ ও ইসলাম-বিদ্বেষের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ
  • নিউহ্যাম কাউন্সিলে রোকশানা ফাইয়াজ লেবার পার্টির মেয়র প্রার্থী