সর্বশেষ খবর

   ‘মৃত শিশুর মাতৃত্ব নিয়ে সন্দেহ’ তদন্ত কমিটি গঠন    শুটিং না করেও টিজারে মুনমুন, পরিচালক বলছেন ভিন্ন কথা    বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন সাকিব-তামিম    বিয়ানীবাজারে জেনোসিডিল সহ যুবক আটক    বজ্রপাতের সময়ে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হয়    এবার গোপালগঞ্জে বাসচাপায় এক নারী নিহত    সিকৃবিতে ‘সেলফ এসেসমেন্ট’ কমিটির কর্মশালা অনুষ্ঠিত    প্রভাষক জুয়েল হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন    সিলেটে মশা নিধনে কার্যকর পদক্ষেপের দাবি    রাজনগরে গৃহবধূ খুন    বাংলাদেশ লোকসংস্কৃতি ফোরাম এর সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি অসিত বরণ    ধোপাদিঘীর ‘ক্ষতি নয়,সৌন্দর্যবর্ধন করছে’ সিসিক    সিলেট চেম্বারে এসএমই উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বিকাশে ই-কমার্স শীর্ষক সেমিনার    সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক    শাবিতে আসছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান    কাবুলে জঙ্গি হামলা, নিহত বেড়ে ৬৩    পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে তারেকের লিগ্যাল নোটিশ    বিএনপির মিছিলে পুলিশি বাধা    জাতীয় পার্টিতে বিএনপির অনেক নেতাই যোগ দেবে: এরশাদ    সংবাদ সম্মেলনে রিজভী তারেক রহমান পাসপোর্ট জমা দিলে সবাইকে দেখান


কৃষি

পেঁয়াজ বীজের সাদাফুলে ভরা মাঠ

সিলেট বার্তা, ২০১৭-০৩-২০ ১৯:২২:৪৯

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় চলতি মৌসুমে ব্যাপক পেঁয়াজ বীজের আবাদ করা হয়েছে। উপজেলার প্রায় প্রতিটি মাঠে এখন পেঁয়াজ বীজের সাদা ফুলের সমারোহ। অন্য ফসলের চেয়ে অধিক লাভজনক হওয়ায় এ অঞ্চলের চাষীরা দিন দিন পেঁয়াজ বীজের আবাদে ঝুঁকছে। চাষীরা এখন সারাদিন ব্যস্ত সময় পার করছেন  বীজ ক্ষেতের পরিচর্যায়।

চাষীরা জানায়, পেঁয়াজ বীজ একটি ঝুঁকিপূর্ণ ফসল। পেঁয়াজ বীজের করে যেমন লাভ বেশি হয়, তেমনি ঝুঁকিপূর্ণ। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে লাভ ভালো হয়। নিড়ানী, সার, কীটনাশকসহ, পেঁয়াজ বীজের পরিচর্যায় এখন ব্যস্ত ভাঙ্গা উপজেলার কৃষকরা। চলতি বছর কৃষকরা পেঁয়াজ বীজের ভালো ফলন আশা করছেন।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানায়, চলতি বছর ভাঙ্গা উপজেলার রেকর্ড পরিমাণ পেঁয়াজ বীজের আবাদ করা হয়েছে। এ বছর পেঁয়াজ বীজ আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৮০০ হেক্টর এবং আবাদ করা হয়েছে ৮২৫ হেক্টর। আবাদের লক্ষ্যমাত্রা রেকর্ড পরিমাণ ছাড়িয়ে গেছে।

পেঁয়াজ চাষীরা জানান, গত বছর পেঁয়াজের বীজ মণ প্রতি বিক্রি হয়েছে ৮০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। কালো সোনা খ্যাত এ বীজ চাষ করে এলাকায় গ্রামীণ কৃষি অর্থনৈতিক চিত্রই পাল্টে গেছে। প্রতি বিঘা জমিতে প্রায় ৩/৪ মণ পেঁয়াজ বীজ উৎপন্ন হয়।

পেঁয়াজ বীজ বিক্রি করে এলাকার কৃষকরা প্রচুর মুনাফা অর্জনের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন।

উপজেলার হিরালদী গ্রামের পেঁয়াজ বীজ আবাদকারী শাহাজাহান বলেন, তিনি ৫ মিঘা জমিতে পেঁয়াজের বীজ আবাদ করছেন। উপজেলার সাউতিকান্দা গ্রামের বিল্লাল মুন্সী বলেন গত বছর আমি ৩ বিঘা জমিতে পেঁয়াজের বীজ আবাদ করে সফলতা পেয়ে ছিলাম, চলতি বছর ৪ বিঘা জমিতে পিয়াজের বীজ আবাদ করে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখছি। উপজেলার পৌরসদরের ভারইডাঙ্গা গ্রামের আদর্শ চাষী ইসহাক মোল্যা বলেন, তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ পেঁয়াজ বীজ আবাদ করছেন।  গত বছর ১০ বিঘা জমিতে পেঁয়াজ বীজ আবাদ করে সফলতা লাভ করায় চলতি বছরও প্রায় ৩৫ বিঘা জমিতে পেঁয়াজ বীজের আবাদ করছেন।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা উপজেলা কৃষি অফিসার মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, এ বছর ভাঙ্গা উপজেলায় ৮২৫ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ বীজের আবাদ করা হয়েছে। আমাদের এ বছর পেঁয়াজ বীজ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৮০০ হেক্টর জমি। আমরা কৃষকদের পেঁয়াজ বীজ আবাদের জন্য সেই ভাবে প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তুলেছি।

এ বার মূলত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায়, সুষম মাত্রায় সার প্রয়োগ এবং কীটনাশক ও সারের সহজলভ্যতা থাকায় পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন ভালো হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন