সর্বশেষ খবর

   সিলেটে মিডল্যান্ড ব্যাংক    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের প্রতিশ্রুতি ধোঁকাবাজি: আরসা    মাংস এবং উচ্চ ক্যালোরিযুক্ত পানীয় ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়    ইনস্টাগ্রামের নয়া ফিচার, দেখেছেন কি?    প্রকাশ্যে চুমু, ‘দেশি গার্ল’-এর বিদেশি রোম্যান্স    নেতানিয়াহুর সঙ্গে সাক্ষাতে অস্বীকৃতি তিন খানের    ১০৫ রানেই শেষ পাকিস্তানের ইনিংস!    আইপিএলে এলিট তালিকায় সাকিব    নেতাকর্মীদের জেলে রেখে নির্বাচন হবে না: ফখরুল    সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ভিত্তিতেই গ্রেফতার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন হচ্ছে না কাল    সিলেটের দক্ষিন সুরমায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪    সোবহানীঘাটে আবাসিক হোটেল থেকে প্রেমিক-প্রেমিকার লাশ উদ্ধার    মন্ত্রণালয়ের দুই কর্মকর্তাসহ নিখোঁজ তিনজন গ্রেফতার    যুবলীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সমাবেশে অর্থমন্ত্রীকে নিমন্ত্রণ    গোয়াইনঘাট থানার আসামী উপশহরে গ্রেফতার    হবিগঞ্জে জমির আইল কাটা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪০    সিলেট জেলা বিএনপির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত    কোম্পানীগঞ্জে পরীক্ষার্থীকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন॥    দক্ষিণ সুরমায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার


অর্থনীতি

একনেকে ১৩ প্রকল্প অনুমোদন

সিলেট বার্তা, ২০১৮-০১-০৯ ১৮:৪৬:৫৬

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ১৩টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব প্রকল্পে ব্যয় হবে ১২ হাজার ৪১৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভায় প্রকল্পগুলোর অনুমোদন দেওয়া হয়।
একনেক সভা শেষে বিকেল ৪টায় প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আজকের উপস্থাপিত ১৩টি (নতুন ও সংশোধিত) প্রকল্পে সরকারি অর্থায়ন ১১ হাজার ৮২২ কোটি ৮২ লাখ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য ৫৯২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা।
তিনি আরো বলেন, আপনারা সবাই দেখছেন, আগের থেকে প্রকল্প অনুমোদন বেশি দেওয়া হচ্ছে। আগের থেকে উন্নয়নের ধারা আরো বেশি করে বজায় রাখার জন্যই বেশি বেশি প্রকল্প হাতে নিচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যেসব এলাকা অনুন্নত সেসব এলাকায় উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিতে। সেজন্য আমরা সেসব এলাকা চিহ্নিত করে প্রকল্প হাতে নিচ্ছি বলেই এখন প্রকল্পের পরিমাণ বেশি হচ্ছে।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা সচিব জিয়াউল ইসলাম, সাধারণ অর্থনৈতিক বিভাগের সদস্য ড. শামসুল ইসলাম প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন