সর্বশেষ খবর

   সিলেটে মিডল্যান্ড ব্যাংক    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের প্রতিশ্রুতি ধোঁকাবাজি: আরসা    মাংস এবং উচ্চ ক্যালোরিযুক্ত পানীয় ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়    ইনস্টাগ্রামের নয়া ফিচার, দেখেছেন কি?    প্রকাশ্যে চুমু, ‘দেশি গার্ল’-এর বিদেশি রোম্যান্স    নেতানিয়াহুর সঙ্গে সাক্ষাতে অস্বীকৃতি তিন খানের    ১০৫ রানেই শেষ পাকিস্তানের ইনিংস!    আইপিএলে এলিট তালিকায় সাকিব    নেতাকর্মীদের জেলে রেখে নির্বাচন হবে না: ফখরুল    সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ভিত্তিতেই গ্রেফতার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন হচ্ছে না কাল    সিলেটের দক্ষিন সুরমায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪    সোবহানীঘাটে আবাসিক হোটেল থেকে প্রেমিক-প্রেমিকার লাশ উদ্ধার    মন্ত্রণালয়ের দুই কর্মকর্তাসহ নিখোঁজ তিনজন গ্রেফতার    যুবলীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সমাবেশে অর্থমন্ত্রীকে নিমন্ত্রণ    গোয়াইনঘাট থানার আসামী উপশহরে গ্রেফতার    হবিগঞ্জে জমির আইল কাটা নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪০    সিলেট জেলা বিএনপির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত    কোম্পানীগঞ্জে পরীক্ষার্থীকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন॥    দক্ষিণ সুরমায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার


তথ্য প্রযুক্তি

হারিয়ে যেতে পারে চকোলেট

সিলেট বার্তা, ২০১৮-০১-০৬ ০১:১৬:৫২

লন্ডন: মুখরোচক খাবার চকলেট। শিশু থেকে বৃদ্ধ সবাই যার ক্রেতা। এই জনপ্রিয় মিষ্টিজাতীয় খাবার আগামী ৩০ বছরের মধ্যেই হারিয়ে যেতে পারে। এর কারণ আর কিছুই নয়, জলবায়ু পরিবর্তন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চকোলেট তৈরির প্রধান উপাদান ক্যাকাও গাছের বীজ। আর সেই ক্যাকাও গাছের বেড়ে উঠতে প্রয়োজন প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টিপাত। কিন্তু তাপমাত্রা বাড়তে থাকায় ক্যাকাও গাছের বৃদ্ধিতে তা ব্যাপক প্রভাব ফেলছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে মার্কিন ন্যাশনাল ওসেনিক অ্যান্ড অ্যাটমোস্ফেরিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশনকে উদ্ধৃত করে জানানো হয়েছে যে, আগামী ৩০ বছরে তাপমাত্রা ২.১ সেন্টিগ্রেড বাড়লে তা চকোলেট শিল্পকেই বিপন্ন করে তুলতে পারে। এভাবে তাপমাত্রা বাড়লে তার ক্ষতিপূরণ কোনও পরিমাণ বৃষ্টিতেই সম্ভবপর নাও হতে পারে।
কোটে ডি’আইভোর ও ঘানার মতো আফ্রিকার দেশগুলিতে বিশ্বের মোট চকোলেটের ৫০ শতাংশ উত্পাদন হয়। জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত এই সমস্যার সঙ্গে যুঝতে হচ্ছে এই দেশগুলিকে।লন্ডনের গবেষণাকারী সংস্থা হার্ডম্যান অ্যাগ্রিবিজনেসের ডাফ হকিন্স জানিয়েছেন, বিশ্বের মোট কোকোয়া উত্পাদনের ৯০ শতাংশই হয় ছোট ছোট জমির মালিকদের দ্বারা। এ সব ক্ষেত্রে আধুনিক প্রযুক্তির প্রয়োগ খুবই কম।
তিনি আরও বলেছেন, যে সব ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে, তা থেকে অনুমান, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে প্রতি বছর চকোলেটে ঘাটতির পরিমাণ প্রতি বছরে হতে পারে ১০০,০০০ টন।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন