সর্বশেষ খবর

   হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ: মাশরাফি    নতুন সম্পর্কে জোলি!    মাটির লেয়ারের ভিন্নতায় পদ্মা সেতুর ১৪ পাইলের ডিজাইনে বিলম্ব    ব্যাংকিং খাতে জবাবদিহিতার জন্য পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : অর্থমন্ত্রী    অবকাঠামো উন্নয়নে ৬০ মিলিয়ন ডলার দেবে ওএফআইডি    বাংলাদেশ যথেষ্ট সক্ষমতা অর্জন করেছে : বিশ্বব্যাংক    ৩৭ হজ এজেন্সিকে নোটিশ    বাজেটে এমপিও অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে: প্রধানমন্ত্রী    ভোলাগঞ্জ ও কালাইরাগে ৩৬টি ‘বোমা মেশিন’ ধ্বংস    ফেঞ্চুগঞ্জে ছাত্রলীগের ৫ নেতা বহিষ্কার    আম্মার মতো আমিও হারিয়ে যাব : রাইমা    ‘সূর্যসেন’ নতুন মঞ্চনাটক    আমি মৃত্যুকে ভয় করি না: আইভী    আমি একাই যথেষ্ট: শামীম ওসমান    সিরিয়ার কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবেন এরদোয়ান    বড় ধরনের বিপদ থেকে বাচঁলেন শোয়েব!    কোহলির জরিমানা    নির্বাচন স্থগিত হওয়া ইসির চরম ব্যর্থতা: ফখরুল    ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ২ বছরের মধ্যে


আন্তর্জাতিক

মুসলমানরাই সবচেয়ে বেশি সন্ত্রাসের শিকার: বান কি মুন

সিলেট বার্তা, ২০১৬-০৪-১১ ২০:২০:১৬

জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন বিশজুড়ে সহিংস ঘটনাবলীতে মুসলমানদের ব্যাপকভাবে ভিকটিম হওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, এক্ষেত্রে আমাদের ঐক্যের  আহবান ও দাবি দেউলিয়াত্বের কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে গত জানুয়ারিতে প্রদত্ত প্রস্তাবের কথা উল্লেখ করে মুন বলেন, এ প্রস্তাবের আলোকে অগ্রবর্তী হলে বিশ্ব অংশীদারিত্বের মাধ্যমে সহিংসতা নির্মূল সম্ভব।

দায়েশ (আইএস) বোকো হারাম দমনে সাফল্য নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে মুন বলেন, কোন ধর্ম, কোন এলাকা, বিশেষ কোন জাতীয়তাবাদী চেতনা কিংবা  জাতিগত সম্প্রদায়কে সহিংসতার জন্য দায়ী করা অনুচিত।

সুইজারল্যান্ড সরকারের সাথে যৌথভাবে আয়োজিত ব্যাপক সহিংসতা দমন শীর্ষক সম্মেলনে মুন বলেন, চলুন আজ স্বীকৃতি দেই যে, বিশ্বব্যাপী আজ মুসলমানরাই অধিক পরিমাণে সহিংসতার শিকার হচ্ছেন। সন্ত্রাসীরা সমাজ কাঠামোকে ভেঙ্গে দিচ্ছে এবং তাদের মূখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে ভয়ের শাসন কায়েম করা।

সম্মেলনের প্রতিপাদ্য সফল ও সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি চলমান দেউলিয়া ও অন্তঃসারশূণ্য কৌশল পরিত্যাগের আহবান জানান। সন্ত্রাসীরা  জাতিসংঘ প্রণীত সনদের বিরুদ্ধে সরাসরি ঝুঁকি। বিশ্ব মানবাধিকার সনদ তারা লঙ্ঘন করে চলেছে। বিশ্ব সমাজের শান্তি ও নিরাপত্তার উদ্যোগকে তারা নস্যাৎ করে চলেছে। টেকসই উন্নয়নকে তারা বাধাগ্রস্ত করছে। বান কি মুন সন্ত্রাসী কার্যক্রমকে বিশ্বের জন্য চরমতম হুমকি উল্লেখ করে তার প্রদর্শিত পথে চলার আহবান জানান।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন