সর্বশেষ খবর

   হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ: মাশরাফি    নতুন সম্পর্কে জোলি!    মাটির লেয়ারের ভিন্নতায় পদ্মা সেতুর ১৪ পাইলের ডিজাইনে বিলম্ব    ব্যাংকিং খাতে জবাবদিহিতার জন্য পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : অর্থমন্ত্রী    অবকাঠামো উন্নয়নে ৬০ মিলিয়ন ডলার দেবে ওএফআইডি    বাংলাদেশ যথেষ্ট সক্ষমতা অর্জন করেছে : বিশ্বব্যাংক    ৩৭ হজ এজেন্সিকে নোটিশ    বাজেটে এমপিও অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে: প্রধানমন্ত্রী    ভোলাগঞ্জ ও কালাইরাগে ৩৬টি ‘বোমা মেশিন’ ধ্বংস    ফেঞ্চুগঞ্জে ছাত্রলীগের ৫ নেতা বহিষ্কার    আম্মার মতো আমিও হারিয়ে যাব : রাইমা    ‘সূর্যসেন’ নতুন মঞ্চনাটক    আমি মৃত্যুকে ভয় করি না: আইভী    আমি একাই যথেষ্ট: শামীম ওসমান    সিরিয়ার কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবেন এরদোয়ান    বড় ধরনের বিপদ থেকে বাচঁলেন শোয়েব!    কোহলির জরিমানা    নির্বাচন স্থগিত হওয়া ইসির চরম ব্যর্থতা: ফখরুল    ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ২ বছরের মধ্যে


পর্যটন

বর্ণাঢ্য আয়োজনে রাঙ্গামাটিতে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত

সিলেট বার্তা, ২০১৬-০৯-২৭ ২১:১২:২৬

মোটর শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পিঠা উৎসবের মধ্য দিয়ে রাঙামাটিতে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল এক বর্ণাঢ্য মোটর শোভাযাত্রা বের করা হয় রাঙামাটি শহরে। শোভাযাত্রাটি রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠার সাংস্কৃতিক ইনিষ্টিটিউট থেকে শুরু হয়ে পুরো শহর প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ মিনার গিয়ে শেষ হয়।

রাঙামাটির পর্যটন শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে উদ্যোক্তাদের অনুপ্রাণিত করতে রাঙামাটি জেলা পরিষদ, স্থানীয় পর্যটন কর্পোরেশন এবং আবাসিক হোটেল মালিকদের যৌথ প্রয়াসে পালিত হয় দিবসটি। পরে জেলা পরিষদ সদস্য অমিত চাকমা রাজু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জাকির হোসেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চিত্ত রঞ্জন পাল ও রাঙামাটি পর্যটন ব্যবস্থাপক আলোক বিকাশ চাকমা, সিভিল সার্জন স্নেহ কান্তি চাকমা, রাঙামাটি আবাসিক হোটেল ব্যবসায়ি সমিতির যুগ্ন সম্পাদক ও হোটেল প্রিন্স এর স্বত্তাধিকারী নেসার আহম্মেদ প্রমুখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা বলেন, সারা দেশের চাইতে এ জেলার বৈচিত্র্য এবং সংস্কৃতি ভিন্ন। যা পৃথিবীর অন্য কোথাও দেখা যায় না। এ জেলার সংস্কৃতি এবং প্রাকৃতিক বৈচিত্র দেখার জন্য প্রতিবছর হাজার মানুষ এ অঞ্চলে ভিড় জমায়। কিন্তু আগত এসব পর্যটকদের এ জেলার সংস্কৃতি এবং বৈচিত্র্য ভাল ভাবে উপভোগ করতে দেয়ার জন্য নানাবিধ পরিকল্পনা গ্রহণ করা উচিত।

তিনি বলেন, পর্যটকদের জন্য নিারাপত্তা, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি, থাকা-খাওয়ার সুবিধাদি এবং পর্যটন স্পটগুলো যদি আরো উন্নতি করা যায় তাহলে এ জেলায় পর্যটকের অভাব হবে না। এ জন্য সকলের সম্বলিত প্রচেষ্ঠা দরকার বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন