সর্বশেষ খবর

   হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ: মাশরাফি    নতুন সম্পর্কে জোলি!    মাটির লেয়ারের ভিন্নতায় পদ্মা সেতুর ১৪ পাইলের ডিজাইনে বিলম্ব    ব্যাংকিং খাতে জবাবদিহিতার জন্য পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : অর্থমন্ত্রী    অবকাঠামো উন্নয়নে ৬০ মিলিয়ন ডলার দেবে ওএফআইডি    বাংলাদেশ যথেষ্ট সক্ষমতা অর্জন করেছে : বিশ্বব্যাংক    ৩৭ হজ এজেন্সিকে নোটিশ    বাজেটে এমপিও অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে: প্রধানমন্ত্রী    ভোলাগঞ্জ ও কালাইরাগে ৩৬টি ‘বোমা মেশিন’ ধ্বংস    ফেঞ্চুগঞ্জে ছাত্রলীগের ৫ নেতা বহিষ্কার    আম্মার মতো আমিও হারিয়ে যাব : রাইমা    ‘সূর্যসেন’ নতুন মঞ্চনাটক    আমি মৃত্যুকে ভয় করি না: আইভী    আমি একাই যথেষ্ট: শামীম ওসমান    সিরিয়ার কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবেন এরদোয়ান    বড় ধরনের বিপদ থেকে বাচঁলেন শোয়েব!    কোহলির জরিমানা    নির্বাচন স্থগিত হওয়া ইসির চরম ব্যর্থতা: ফখরুল    ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন স্থগিত    রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ২ বছরের মধ্যে


চিত্র-বিচিত্র

মৃত্যুর আগের মুহূর্তে বিয়ে করলেন নিজের 'ভালবাসাকে'

সিলেট বার্তা, ২০১৮-০১-০৬ ০০:৪৫:৫৩

কানেক্টিকাট:  কর্কট রোগ, এই মারণ ব্যাধি যার শরীরেই বাসা বাঁধে, তিনি জীবনযুদ্ধ যতই লড়াই করুক, মৃত্যু তাকে কোনও না কোনও সময় গ্রাস করে। কখনও কারও দরজায় যম দূত কড়া নাড়ে খানিক আগে, কখনও আবার কারও দরজায় কিছুটা দেরিতে। বর্তমানে চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিশাল উন্নতির পরও কর্কট রোগের সামনে যেন আজও মানুষ বড় অসহায়।

তবে কিছু মানুষের হার না মানা লড়াই, আজও এই রোগে আক্রান্ত বহু মানুষের কাছে বড় অনুপ্রেরণা। হিথার মোশার, ডেভিড মোশার। দুজনে একে অপরের প্রেমে পড়েছিলেন ২০১৫ সালে।

তারপর থেকেই তারা অবিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছেন। কিন্তু ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে আচমকাই হিথার জানতে পারেন, মারণ কর্কট ব্যাধি থাবা বসিয়েছে তার স্তনে। তবে যেদিনই এই দুঃসংবাদটি পান হিথার, সেদিনই ডেভিড তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কারণ একটাই। ডেভিড হিথারকে বোঝাতে চেয়েছিলেন, এই কঠিন লড়াইয়ে তিনি একা নন। তাঁর সঙ্গে পথ চলবে ডেভিডও।
তবে কিছুদিন পরই হিথার জানতে পারেন, তিনি ট্রিপল নেগেটিভ ক্যান্সারে আক্রান্ত। যেটা ক্যান্সারের অন্যতম অ্যাগ্রেসিভ ফর্ম।
এখান থেকে সারার বা বেঁচে ফেরার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। তখনই ডেভিড সিদ্ধান্ত নেন ২০১৭ সালের ৩০ ডিসেম্বর তারা বিয়ে করবেন। এদিকে কানেক্টিকাটের সেন্ট ফ্রান্সিস হাসপাতালে চলতে থাকে হিথারের চিকিত্সা। তবে চিকিত্সায় তেমন সাড়া দিচ্ছিলেন না হিথার। ডেভিড বুঝতে পারেন তাঁদের হাতে সময় কমে আসছে। তখনই সিদ্ধান্ত বদলে ডেভিড ২২ ডিসেম্বর বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন।
বিয়েও হয় গত ২২ ডিসেম্বর। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে হিথার বিয়ের মন্ত্র উচ্চারণ ও আংটি বদলের পরই ঢলে পড়েন মৃত্যু কোলে। ডেভিডের কাছে থেকে যায় শুধু স্মৃতি……….



শেয়ার করুন

Print Friendly and PDF

আপনার মতামত দিন